শরীর বন্ধ করার দোয়া

শরীর বন্ধ করা হল বদনজার, জাদুবিদ্যা এড়াতে নির্দিষ্ট কিছু দোয়া আবৃত্তি করা এবং শরীরে ফুঁ দেওয়া। মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম সারা শরীরে ফুঁ দিয়ে সূরা ইখলাস, ফালাক ও নাস পাঠ করে শরীর বন্ধ করতেন। শরীর বন্ধ করার দোয়া নিচে দেওয়া হলোঃ

হাদিস শরীফ থেকে জানা গেছে যে,

” أَنَّ النَّبِيَّ صلى الله عليه وسلم كَانَ إِذَا أَوَى إِلَى فِرَاشِهِ كُلَّ لَيْلَةٍ جَمَعَ كَفَّيْهِ ثُمَّ نَفَثَ فِيْهِمَا فَقَرَأَ فِيْهِمَا(قُلْ هُوَ اللهُ أَحَدٌ)وَ (قُلْ أَعُوْذُ بِرَبِّ الْفَلَقِ) وَ (قُلْ أَعُوْذُ بِرَبِّ النَّاسِ) ثُمَّ يَمْسَحُ بِهِمَا مَا اسْتَطَاعَ مِنْ جَسَدِهِ يَبْدَأُ بِهِمَا عَلَى رَأْسِهِ وَوَجْهِهِ وَمَا أَقْبَلَ مِنْ جَسَدِهِ يَفْعَلُ ذَلِكَ ثَلَاثَ مَرَّاتٍ ”

“প্রতি রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে, রাসুল (সাঃ) সূরা ইখলাস, সূরা ফালাক এবং সূরা নাস পাঠ করতেন, তারপর তাঁর হাত একত্রিত করতেন এবং তাঁর হাতের উপর যতদূর সম্ভব ফুঁ দিতেন।” তিনি মাথা ও মুখ দিয়ে শুরু করতেন এবং শরীরের সামনের অর্ধেক তিনবার স্পর্শ করতেন। এইভাবে তিনি শরীর বন্ধ করার দোয়া পড়তেন।” ইফা: ৪৬৫২ (সহীহ বুখারি, হাদিস নম্বর ৫০১৭)

শরীর বন্ধ করার দোয়া ছবি

শরীর বন্ধ করার দোয়া ছবি

সূরা ইখলাস আরবি

قُلْ هُوَ اللَّهُ أَحَدٌ
اللَّهُ الصَّمَدُ
لَمْ يَلِدْ وَلَمْ يُولَدْ
وَلَمْ يَكُنْ لَهُ كُفُوًا أَحَدٌ

বাংলা অনুবাদ:

বলুন, তিনি আল্লাহ, এক। আল্লাহ অমুখাপেক্ষী। তিনি কাউকে জন্ম দেননি এবং জন্মগ্রহণ করেননি। এবং তার সমতুল্য কেউ নেই।

সূরা ইখলাস কোরআনের ১১২তম সূরা। এটি একটি ছোট্ট সূরা, কিন্তু এর অর্থ ও তাৎপর্য অত্যন্ত গভীর। এই সূরায় আল্লাহর একত্ববাদ ও অমুখাপেক্ষীতার কথা বলা হয়েছে। আল্লাহর কোনো অংশীদার নেই, তিনি সৃষ্টিকর্তা, পালনকর্তা ও বিচারক। তিনি একমাত্র যোগ্য উপাস্য।

আরো পড়ুনঃ  দোয়া কুনুত মুখস্ত করার সহজ পদ্ধতি

সূরা ফালাক আরবি

قُلۡ أَعُوذُ بِرَبِّ ٱلۡفَلَقِ
مِن شَرِّ مَا خَلَقَ
وَمِن شَرِّ غَاسِقٍ إِذَا وَقَبَ
وَمِن شَرِّ ٱلنَّفَّـٰثَـٰتِ فِى ٱلۡعُقَدِ
وَمِن شَرِّ حَاسِدٍ إِذَا حَسَدَ

সূরা ফালাক বাংলা উচ্চারণঃ

ক্বুল আউযু বিরাব্বিল ফালাক।
মিন শাররি মাখালাক্ব।
ওয়া মিন শাররি গাসিক্বিন ইযা অক্বাব।
ওয়া মিন শাররিন নাফ্‌ফাসাতি ফিল্‌ উকাদ।
ওয়া মিন শাররি হাসিদিন ইযা হাসাদ।

সূরা ফালাক বাংলা ছবি

সূরা ফালাক বাংলা ছবি

বাংলা অনুবাদ:

বলুন, আমি ভোরের রবের কাছে আশ্রয় চাই, তিনি যে অনিষ্ট করেছেন তা থেকে, অন্ধকার রাতে জমায়েত হওয়া অনিষ্ট থেকে।
গ্রন্থিগুলিতে ফুঁ দিয়ে, আপনি নিজেকে ডাইনিদের কুফল থেকে রক্ষা করতে পারেন।
যখন সে ঈর্ষান্বিত হয়, তখন সে ঈর্ষান্বিতদের কুফল ভোগ করে।

সূরা নাস আরবি

قُلۡ أَعُوذُ بِرَبِّ ٱلنَّاسِ
مَلِكِ ٱلنَّاسِ
إِلَـٰهِ ٱلنَّاسِ
مِن شَرِّ الْوَسْوَاسِ الْخَنَّاسِ
الَّذِي يُوَسْوِسُ فِي صُدُورِ النَّاسِ
مِنَ الْجِنَّةِ وَ النَّاسِ

সূরা নাস বাংলা উচ্চারণঃ

ক্বুল আউযু বিরাব্বিন নাস।
মালিকিন্নাস।
ইলাহিন্নাস।
মিন শাররীল ওয়াস ওয়াসিল খান্নাস।
আল্লাযি ইউওয়াস ইসু ফী সুদুরিন্নাস।
মিনাল জিন্নাতি ওয়ান নাস।

সূরা নাস বাংলা ছবি

সূরা নাস বাংলা ছবি

বাংলা অনুবাদ:

বলুন, আমি আশ্রয় গ্রহণ করছি মানুষের পালনকর্তার।
মানুষের অধিপতির,
মানুষের মা’ বুদের,
তার অনিষ্ট থেকে, যে কুমন্ত্রণা দেয় ও আত্মগোপন করে,
যে কুমন্ত্রণা দেয় মানুষের অন্তরে,
জ্বিনের মধ্য থেকে অথবা মানুষের মধ্য থেকে।

এই সূরা গুলি পড়ার মাধ্যমে আপনি শরীর বন্ধ করার দোয়া পড়তে পারেন।

আরো পড়ুনঃ ইস্তেখারার দোয়া বাংলা উচ্চারণ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top