বাংলাদেশের মানচিত্র ছবি hd

বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ার একটি স্থলবেষ্টিত দেশ। এটি উত্তরে ভারত, পূর্বে মিয়ানমার, দক্ষিণে বঙ্গোপসাগর এবং পশ্চিমে ভারত দ্বারা বেষ্টিত। বাংলাদেশের আয়তন ১৪৭,৫৭০ বর্গকিলোমিটার এবং জনসংখ্যা প্রায় ১৬০ মিলিয়ন।

বাংলাদেশের মানচিত্র একটি সরু উপবৃত্তাকার আকৃতির। এর উত্তর-দক্ষিণ বিস্তার ১,৬৪০ কিলোমিটার এবং পূর্ব-পশ্চিম বিস্তার ৫৪০ কিলোমিটার। দেশের উত্তর-পশ্চিম কোণে একটি ছোট্ট উপদ্বীপ রয়েছে যা ভারতের অন্তর্ভুক্ত।

বাংলাদেশের ভূপ্রকৃতি বেশ বৈচিত্র্যময়। দেশের উত্তর-পশ্চিম অংশে একটি উচ্চভূমি রয়েছে যা হিমালয় থেকে প্রবাহিত নদীগুলি দ্বারা খনন করা হয়েছে। এই অঞ্চলে অনেকগুলি দীর্ঘ পাহাড় এবং উপত্যকা রয়েছে। দেশের দক্ষিণ-পূর্ব অংশে একটি নিম্নভূমি রয়েছে যা বঙ্গোপসাগরের কাছে অবস্থিত। এই অঞ্চলটি অনেকগুলি নদী দ্বারা ছেয়ে আছে।

বাংলাদেশের জলবায়ু গ্রীষ্মমন্ডলীয়। গ্রীষ্মকাল গরম এবং আর্দ্র, এবং শীতকাল হালকা এবং শুষ্ক।

বাংলাদেশের প্রধান নদীগুলি হল গঙ্গা, ব্রহ্মপুত্র, মেঘনা এবং যমুনা। এই নদীগুলি দেশের অর্থনীতি এবং পরিবহন ব্যবস্থার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

বাংলাদেশের প্রধান শহরগুলি হল ঢাকা (রাজধানী), চট্টগ্রাম, খুলনা, রাজশাহী এবং সিলেট।

বাংলাদেশের মানচিত্রের উপরে উল্লেখিত বৈশিষ্ট্যগুলি ছাড়াও, এখানে আরও কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য রয়েছে:

  • বাংলাদেশের সর্বোচ্চ বিন্দু হল ময়মনসিংহ জেলার বড়ইপাড়া পাহাড়, যার উচ্চতা ১,০০০ মিটার।
  • বাংলাদেশের সর্বনিম্ন বিন্দু হল বঙ্গোপসাগরের উপকূল, যার উচ্চতা সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ০ মিটার।
  • বাংলাদেশের বৃহত্তম নদী হল গঙ্গা, যার দৈর্ঘ্য ২,৫২৫ কিলোমিটার।
  • বাংলাদেশের সবচেয়ে জনবহুল শহর হল ঢাকা, যার জনসংখ্যা প্রায় ১ কোটি।

বাংলাদেশের মানচিত্র ছবি

বাংলাদেশের মানচিত্র ছবি hdবাংলাদেশের মানচিত্র ছবি hd

বাংলাদেশের মানচিত্র ছবিবাংলাদেশের মানচিত্র উপজেলাসহ

বাংলাদেশ একটি ত্রিভুজাকার দেশ, যা ভারত, মিয়ানমার এবং বঙ্গোপসাগর দ্বারা বেষ্টিত। দেশটিতে ৮টি বিভাগ, ৬৪টি জেলা এবং ৪৯৫টি উপজেলা রয়েছে।

আরো পড়ুনঃ  পহেলা ফাল্গুন ২০২৪

উপজেলা হল বাংলাদেশের প্রশাসনিক ব্যবস্থার তৃতীয় স্তর। একটি উপজেলার প্রধান প্রশাসনিক কর্মকর্তা হলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)। ইউএনও একজন সিভিল সার্ভেন্ট, যিনি সরকারের পক্ষে উপজেলার প্রশাসনিক এবং আইনি কার্যক্রম পরিচালনা করেন।

বাংলাদেশের উপজেলা মানচিত্র

বাংলাদেশের উপজেলা মানচিত্রটি নিম্নলিখিত উপাদানগুলি দেখায়:

  • বিভাগ
  • জেলা
  • উপজেলা
  • নদী
  • সড়ক
  • রেলপথ
  • শহর
  • গ্রাম

বাংলাদেশের উপজেলা মানচিত্রের উদাহরণ

বাংলাদেশের উপজেলা মানচিত্রের একটি উদাহরণ নিম্নরূপ:

বাংলাদেশ

৮টি বিভাগ

৬৪টি জেলা

৪৯৫টি উপজেলা

উপজেলার প্রধান প্রশাসনিক কর্মকর্তা হলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)।

বাংলাদেশের উপজেলা মানচিত্রটি নিম্নলিখিত উপাদানগুলি দেখায়:

  • বিভাগ
  • জেলা
  • উপজেলা
  • নদী
  • সড়ক
  • রেলপথ
  • শহর
  • গ্রাম

বাংলাদেশের উপজেলা মানচিত্রের একটি উদাহরণ নিম্নরূপ:

বাংলাদেশের উপজেলা মানচিত্রের ব্যবহার

বাংলাদেশের উপজেলা মানচিত্র বিভিন্ন উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা যেতে পারে, যেমন:

  • ভৌগোলিক অবস্থান নির্ধারণ
  • প্রশাসনিক কার্যক্রম পরিচালনা
  • পরিকল্পনা ও উন্নয়ন কার্যক্রম
  • গবেষণা ও শিক্ষা

বাংলাদেশের মানচিত্র প্রথম কে আঁকেন

বাংলাদেশের মানচিত্র প্রথম আঁকেন ইংরেজ ভূগোলবিদ এবং মানচিত্রকার জেমস রেনেল। ১৭৬৪ সালে তিনি বাংলার সার্ভেয়ার জেনারেল হিসেবে নিয়োগ পান এবং ১৭৭৯ সালে তিনি “Bengal Atlas” নামক একটি মানচিত্র বই প্রকাশ করেন। এই বইতে তিনি বাংলার একটি মানচিত্র অন্তর্ভুক্ত করেন, যাকে বাংলাদেশের প্রথম মানচিত্র হিসেবে বিবেচনা করা হয়। এই মানচিত্রটিতে বাংলার ভূ-প্রকৃতি, নদী, খাল, বিল, শহর, গ্রাম ইত্যাদির সঠিক উপস্থাপন করা হয়েছে।

রেনেলের মানচিত্রের পরে, বাংলাদেশের মানচিত্র আঁকার ক্ষেত্রে আরও অনেকে অবদান রেখেছেন। ১৮৭৫ সালে ব্রিটিশ সরকার একটি নতুন মানচিত্র প্রকাশ করে, যাতে বাংলাদেশের সীমানা আরও সঠিকভাবে নির্ধারিত হয়। ১৯৪৭ সালে ভারত বিভাগের পর, পূর্ব পাকিস্তানের জন্য একটি নতুন মানচিত্র প্রকাশ করা হয়। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতার পর, নতুন সরকার একটি নতুন মানচিত্র প্রকাশ করে, যাতে বাংলাদেশের সীমানা আরও নির্ভুলভাবে নির্ধারিত হয়।

বর্তমানে, বাংলাদেশের মানচিত্র সংরক্ষণ এবং প্রকাশনার দায়িত্বে রয়েছে বাংলাদেশ সরকারের ভূমি মন্ত্রণালয়।

আরো পড়ুনঃ  ভাষার মূল উপকরণ কি

সুতরাং, বাংলাদেশের মানচিত্র প্রথম আঁকেন জেমস রেনেল।

বাংলাদেশের মানচিত্র গ্রাম সহ

বাংলাদেশের মানচিত্র গ্রাম সহ নিচের চিত্রে দেখানো হয়েছে। এই মানচিত্রে বাংলাদেশের সকল গ্রাম, ইউনিয়ন, উপজেলা, জেলা, বিভাগ এবং দেশের সীমানা চিহ্নিত করা হয়েছে।

বাংলাদেশের মানচিত্র গ্রাম সহ

এই মানচিত্রটি বাংলাদেশ সরকারের ভূমি মন্ত্রণালয় থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে। এটি একটি পূর্ণাঙ্গ মানচিত্র যা বাংলাদেশের সমস্ত ভূখণ্ডকে অন্তর্ভুক্ত করে।

গ্রামের নামগুলি মানচিত্রে ছোট, নীল বর্ণ দিয়ে লেখা আছে। ইউনিয়ন, উপজেলা, জেলা এবং বিভাগের নামগুলি মানচিত্রে বড়, কালো বর্ণ দিয়ে লেখা আছে। দেশের সীমানা লাল রঙ দিয়ে আঁকা হয়েছে।

এই মানচিত্রটি শিক্ষা, গবেষণা এবং অন্যান্য উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা যেতে পারে। এটি বাংলাদেশের ভূখণ্ড এবং জনবসতি সম্পর্কে একটি ভাল ধারণা দেয়।

আপনি যদি বাংলাদেশের নির্দিষ্ট কোন গ্রাম সম্পর্কে জানতে চান, তাহলে আপনি মানচিত্রে সেই গ্রামের নাম খুঁজে পেতে পারেন। গ্রামটির অবস্থান এবং আশেপাশের এলাকাগুলি সম্পর্কে আরও তথ্যের জন্য, আপনি মানচিত্রের সাথে সংযুক্ত তথ্য প্যানেলটি দেখতে পারেন।

নিচে বাংলাদেশের মানচিত্র গ্রাম সহ ব্যবহারের কিছু টিপস দেওয়া হল:

  • মানচিত্রটি বড় করে দেখতে, আপনি আপনার মাউসের চাকা ব্যবহার করতে পারেন বা মানচিত্রের উপরে ডান-ক্লিক করে “Zoom in” নির্বাচন করতে পারেন।
  • মানচিত্রটি ছোট করে দেখতে, আপনি আপনার মাউসের চাকা ব্যবহার করতে পারেন বা মানচিত্রের উপরে ডান-ক্লিক করে “Zoom out” নির্বাচন করতে পারেন।
  • মানচিত্রের একটি নির্দিষ্ট অংশে মনোযোগ কেন্দ্রীভূত করতে, আপনি মানচিত্রের উপরে ডান-ক্লিক করে “Pan” নির্বাচন করতে পারেন এবং তারপর আপনার মাউসের বোতামটি ক্লিক করে এবং ধরে রেখে মানচিত্রটিকে যেদিকে চান সেদিকে সরাতে পারেন।
  • মানচিত্রের সাথে সংযুক্ত তথ্য প্যানেলটি দেখতে, আপনি মানচিত্রের উপরে ডান-ক্লিক করে “Information” নির্বাচন করতে পারেন।

বাংলাদেশের মানচিত্র রাস্তা

বাংলাদেশের মানচিত্র রাস্তা হলো বাংলাদেশের সড়কপথের একটি মানচিত্র। এই মানচিত্রটিতে বাংলাদেশের সকল সড়কপথ, যেমন মহাসড়ক, আঞ্চলিক মহাসড়ক, জেলা সড়ক, উপজেলা সড়ক, গ্রামীণ সড়ক, এবং নদীর উপর নির্মিত সড়কপথ অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

আরো পড়ুনঃ  বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি কে ছিলেন

বাংলাদেশের মানচিত্র রাস্তাটি বিভিন্ন উপায়ে ব্যবহার করা যেতে পারে, যেমন:

  • ভ্রমণ পরিকল্পনা করা
  • যানবাহন পরিচালনা করা
  • পরিবহন পরিষেবাগুলির মান উন্নত করা
  • অবকাঠামোগত উন্নয়ন পরিকল্পনা করা

বাংলাদেশের মানচিত্র রাস্তাটি বিভিন্ন উৎস থেকে পাওয়া যায়, যেমন:

  • বাংলাদেশ সরকারের বাংলাদেশ জরিপ অধিদপ্তর
  • বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থা
  • অনলাইন মানচিত্র পরিষেবা

বাংলাদেশের মানচিত্র রাস্তাটি একটি গুরুত্বপূর্ণ হাতিয়ার যা বাংলাদেশের সড়কপথ ব্যবস্থা সম্পর্কে তথ্য প্রদান করে। এই মানচিত্রটি ব্যবহার করে, ব্যবহারকারীরা বাংলাদেশের যেকোনো স্থানে ভ্রমণ পরিকল্পনা করতে পারে, যানবাহন পরিচালনা করতে পারে, এবং পরিবহন পরিষেবাগুলির মান উন্নত করতে পারে।

বাংলাদেশের মানচিত্র রাস্তাটিতে নিম্নলিখিত তথ্য অন্তর্ভুক্ত রয়েছে:

  • সড়কের নাম
  • সড়কের ধরন
  • সড়কের দৈর্ঘ্য
  • সড়কের অবস্থান

বাংলাদেশের মানচিত্র রাস্তাটি বিভিন্ন উপায়ে উপস্থাপন করা যেতে পারে, যেমন:

  • 2D মানচিত্র
  • 3D মানচিত্র
  • স্ট্রিট ভিউ

বাংলাদেশের মানচিত্র রাস্তাটি একটি ক্রমবর্ধমান এবং উন্নত পরিষেবা। নতুন সড়কপথ নির্মাণ এবং পরিবহন পরিষেবাগুলির উন্নতির সাথে সাথে বাংলাদেশের মানচিত্র রাস্তাটিও আপডেট করা হয়।

বাংলাদেশের মানচিত্র pdf

pdf

বাংলাদেশের মানচিত্র জেলাসহ বাংলা pdf

pdf

৬৪ জেলার নাম সহ বাংলাদেশের মানচিত্র

এই মানচিত্রে বাংলাদেশের ৬৪টি জেলার নাম ইংরেজি এবং বাংলায় লেখা আছে। জেলাগুলিকে তাদের বিভাগ অনুযায়ী রঙিন করা হয়েছে।

বাংলাদেশের বিভাগ এবং জেলাগুলির তালিকা

বিভাগ জেলা
ঢাকা বিভাগ ঢাকা, নরসিংদী, গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, মাদারীপুর, ফরিদপুর, গোপালগঞ্জ, শরীয়তপুর, মানিকগঞ্জ
চট্টগ্রাম বিভাগ চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, রাঙ্গামাটি, বান্দরবান, খাগড়াছড়ি
রাজশাহী বিভাগ রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, নওগাঁ, জয়পুরহাট, বগুড়া, পাবনা, সিরাজগঞ্জ
খুলনা বিভাগ খুলনা, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা, যশোর, ঝিনাইদহ, মাগুরা, চুয়াডাঙ্গা, মেহেরপুর
বরিশাল বিভাগ বরিশাল, পটুয়াখালী, ঝালকাঠি, ভোলা, বরগুনা
সিলেট বিভাগ সিলেট, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ, সুনামগঞ্জ
রংপুর বিভাগ রংপুর, দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও, পঞ্চগড়, লালমনিরহাট, গাইবান্ধা, কুড়িগ্রাম
ময়মনসিংহ বিভাগ ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, জামালপুর, শেরপুর, কিশোরগঞ্জ

বাংলাদেশের ভৌগোলিক অবস্থান

বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ায় অবস্থিত একটি স্থলবেষ্টিত দেশ। এটি ভারত, মিয়ানমার এবং বঙ্গোপসাগর দ্বারা বেষ্টিত। বাংলাদেশের উত্তরে ভারত, পূর্বে মিয়ানমার, দক্ষিণে বঙ্গোপসাগর এবং পশ্চিমে ভারত অবস্থিত।

বাংলাদেশের আয়তন ১৪৭,৫৭০ বর্গকিলোমিটার। এর জনসংখ্যা প্রায় ১৬ কোটি। বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা।

আরো পড়ুনঃ মানিকগঞ্জ কিসের জন্য বিখ্যাত

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top