তুরস্কের রাজধানী ও মুদ্রার নাম কি

Table of Contents

তুরস্কের রাজধানী ও মুদ্রার নাম কি

তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারা। এটি তুরস্কের মধ্যাঞ্চলে আনাতোলিয়া উপদ্বীপে অবস্থিত। তুরস্কের বৃহত্তম শহর ইস্তাম্বুল এশিয়ার অংশে অবস্থিত। তবে তুরস্কের প্রশাসনিক কেন্দ্র আঙ্কারা।

তুরস্কের মুদ্রা তুর্কি লিরা। এটি ১০০ খুরুশ-এ বিভক্ত।

তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী কে?

তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী নেই। ২০১৪ সালের সংবিধান সংশোধনের পর তুরস্ক একটি প্রেসিডেন্সিয়াল সরকার ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। এর অর্থ হল সরকারের প্রধান হলেন রাষ্ট্রপতি

বর্তমান তুরস্কের রাষ্ট্রপতি হলেন রিসেপ তাইয়িপ এরদোয়ান। তিনি ২০১৪ সালের ২০ আগস্ট থেকে দায়িত্ব পালন করছেন।তুরস্কের রাজধানী ও মুদ্রার নাম কি

তুরস্ক মুদ্রা গুলো কি কি?

তুরস্কের মুদ্রা তুর্কি লিরা। এটি ১০০ খুরুশ-এ বিভক্ত।

বর্তমানে তুরস্কে প্রচলিত মুদ্রাগুলি হল:

  • নোটের মান:
    • ৫ লিরা
    • ১০ লিরা
    • ২০ লিরা
    • ৫০ লিরা
    • ১০০ লিরা
    • ২০০ লিরা
  • মুদ্রামান:
    • ১ লিরা
    • ৫ লিরা
    • ১০ লিরা
    • ২০ লিরা
    • ৫০ লিরা
    • ১০০ লিরা

নোটের সামনের দিকে তুরস্কের রাষ্ট্রপতির ছবি থাকে। মুদ্রার পিছনে বিভিন্ন ঐতিহাসিক স্থান ও ব্যক্তিত্বের ছবি থাকে।তুরস্কের রাজধানী ও মুদ্রার নাম কি

তুর্কি লিরার মুদ্রা প্রতীক হল ₺।

তুরস্কের ভাষার নাম কি

তুরস্কের সরকারি ভাষার নাম তুর্কি ভাষা। এটি একটি তুর্কীয় ভাষা যা তুরস্ক, উত্তর সাইপ্রাস, বলকান উপদ্বীপ, মধ্যপ্রাচ্য এবং ককেশাসে প্রায় ৮ কোটি মানুষ দ্বারা কথিত হয়।

তুর্কি ভাষা আনাতোলীয় তুর্কি ভাষা নামেও পরিচিত। এটি একটি আফ্রো-এশীয় ভাষা পরিবারভুক্ত ভাষা। তুর্কি ভাষার লিখন পদ্ধতি ল্যাটিন বর্ণমালা।তুরস্কের রাজধানী ও মুদ্রার নাম কি

তুর্কি ভাষার ইতিহাস অত্যন্ত সমৃদ্ধ। এটি ১১শ শতাব্দী থেকে আনাতোলিয়ার প্রধান ভাষা হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। ১৯২৩ সালে তুরস্ক প্রজাতন্ত্রের প্রতিষ্ঠার পর তুর্কি ভাষাকে সরকারি ভাষা হিসেবে ঘোষণা করা হয়।

আরো পড়ুনঃ  আব্দুল্লাহ আল জুবায়ের নামের অর্থ কি

বর্তমানে তুরস্কে প্রায় ৯০% মানুষ তুর্কি ভাষাতে কথা বলেন। এছাড়াও এখানে আরও প্রায় ৩০টি ভাষা প্রচলিত।

তুরস্কের পূর্ব নাম কি

তুরস্কের পূর্ব নাম ছিল ওসমানীয় সাম্রাজ্য। এটি ১২৯৯ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল এবং ১৯২২ সালে ভেঙে পড়ে। ওসমানীয় সাম্রাজ্য ছিল বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ সাম্রাজ্য। এটি এশিয়া, ইউরোপ এবং আফ্রিকার বিস্তীর্ণ অঞ্চল জুড়ে বিস্তৃত ছিল।তুরস্কের রাজধানী ও মুদ্রার নাম কি

ওসমানীয় সাম্রাজ্যের পতনের পর তুরস্ক প্রজাতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয়। নতুন প্রজাতন্ত্রের নামকরণ করা হয় তুর্কি। এর কারণ হল, তুরস্কের বেশিরভাগ মানুষ তুর্কি জাতিগোষ্ঠীর।

২০২০ সালে তুরস্ক সরকার আন্তর্জাতিক পরিসরে দেশের নাম পরিবর্তন করে তুর্কিয়ে করার আবেদন করে। জাতিসংঘের অনুমোদনক্রমে ২০২৩ সালের জুন মাসে তুরস্কের নাম পরিবর্তন করে তুর্কিয়ে করা হয়।

সুতরাং, তুরস্কের পূর্ব নাম ছিল ওসমানীয় সাম্রাজ্য। বর্তমানে তুরস্কের নাম তুর্কিয়ে।তুরস্কের রাজধানী ও মুদ্রার নাম কি

তুরস্ক কিসের জন্য বিখ্যাত

তুরস্ক তার সমৃদ্ধ ইতিহাস, সংস্কৃতি, প্রাকৃতিক সৌন্দর্য এবং সুস্বাদু খাবারের জন্য বিখ্যাত।

ইতিহাস ও সংস্কৃতি

তুরস্কে প্রাচীনকাল থেকেই বিভিন্ন সভ্যতার বসবাস ছিল। এই দেশটিতে হেলেনীয়, রোমান, বাইজেন্টাইন এবং অটোমান সাম্রাজ্যের মতো বিভিন্ন সাম্রাজ্যের নিদর্শন পাওয়া যায়। তুরস্কের সবচেয়ে বিখ্যাত ঐতিহাসিক স্থানগুলির মধ্যে রয়েছে:

  • হাজিয়া সোফিয়া (ইস্তাম্বুল)
  • সুলেমানী মসজিদ (ইস্তাম্বুল)
  • এফেসুস (ইজমির)
  • কাপাডোকিয়া (নেভশেহির)
  • পামুক্কালে (ডেনিজলি)

তুরস্কের সংস্কৃতিও অত্যন্ত বৈচিত্র্যময়। এখানে ইসলাম, খ্রিস্টান এবং অন্যান্য ধর্মের লোকেরা বসবাস করে। তুরস্কের সংস্কৃতিতে বিভিন্ন সভ্যতার প্রভাব লক্ষ্য করা যায়। তুরস্কের সবচেয়ে জনপ্রিয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানগুলির মধ্যে রয়েছে:

  • নববর্ষ উৎসব (জানুয়ারি)
  • রমজান উৎসব (এপ্রিল)
  • কোরবান ঈদ (জুলাই)

প্রাকৃতিক সৌন্দর্য

তুরস্কের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যও অসাধারণ। এখানে সমুদ্র সৈকত, পর্বতমালা, উপত্যকা, হ্রদ এবং ঝর্ণা রয়েছে। তুরস্কের সবচেয়ে জনপ্রিয় প্রাকৃতিক দর্শনীয় স্থানগুলির মধ্যে রয়েছে:

  • কাপাডোকিয়া (নেভশেহির)
  • পামুক্কালে (ডেনিজলি)
  • ভুলকানবাহট (আদানা)
  • থ্রেস উপত্যকা (ইস্তাম্বুল)
  • ট্রোজান উপত্যকা (চanakkale)

খাবার

তুরস্কের খাবারও অত্যন্ত সুস্বাদু। এখানে বিভিন্ন ধরনের খাবার পাওয়া যায়। তুরস্কের সবচেয়ে জনপ্রিয় খাবারের মধ্যে রয়েছে:

  • কেবাব
  • ডোনার কাবাব
  • ইয়ালানী
  • ল্যাম্ব স্টু
  • তুর্কি পিঠা

এই ছাড়াও, তুরস্কে কেনাকাটা, শপিং মল, রাতজীবন এবং অন্যান্য পর্যটন আকর্ষণ রয়েছে।তুরস্কের রাজধানী ও মুদ্রার নাম কি

আরো পড়ুনঃ  আব্দুল্লাহ আল মুয়াজ নামের অর্থ কি

তুরস্ক কোন মহাদেশে অবস্থিত

তুরস্ক ইউরোপ এবং এশিয়ার মধ্যে অবস্থিত। এর বেশিরভাগ অংশ এশিয়াতে অবস্থিত, তবে এর একটি ছোট অংশ ইউরোপে অবস্থিত।

তুরস্কের ইউরোপীয় অংশটি বলকান উপদ্বীপে অবস্থিত। এটি গ্রিস এবং বলকান অঞ্চলের অন্যান্য দেশগুলির সাথে সীমানা ভাগ করে নেয়। তুরস্কের এশীয় অংশটি আনাতোলিয়া উপদ্বীপে অবস্থিত। এটি সিরিয়া, ইরাক, ইরান এবং অন্যান্য এশীয় দেশগুলির সাথে সীমানা ভাগ করে নেয়।তুরস্কের রাজধানী ও মুদ্রার নাম কি

তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারা আনাতোলিয়া উপদ্বীপে অবস্থিত। তুরস্কের বৃহত্তম শহর ইস্তাম্বুল ইউরোপীয় এবং এশীয় অংশ উভয়ের মধ্যে অবস্থিত। ইস্তাম্বুল বসফরাস প্রণালী দ্বারা ইউরোপ এবং এশিয়াকে বিভক্ত করেছে।

তুরস্ক একটি ঐতিহাসিক এবং সাংস্কৃতিকভাবে সমৃদ্ধ দেশ। এটি প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের জন্যও বিখ্যাত। তুরস্ক একটি জনপ্রিয় পর্যটন গন্তব্য।

তুরস্ক জনসংখ্যা কত

২০২৩ সালের ১০ই ডিসেম্বর পর্যন্ত তুরস্কের জনসংখ্যা ৮৪.৭৮ মিলিয়ন। এর মধ্যে ৭০.৫% শহরাঞ্চলে এবং ২৯.৫% গ্রামাঞ্চলে বসবাস করে। তুরস্কের জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ১.২৪%

তুরস্কের জনসংখ্যার বেশিরভাগ অংশ তুর্কি জাতিগোষ্ঠীর। এছাড়াও এখানে কুর্দি, আর্মেনিয়ান, গ্রীক এবং অন্যান্য জাতিগোষ্ঠীর লোকেরা বসবাস করে।তুরস্কের রাজধানী ও মুদ্রার নাম কি

তুরস্কে ইসলাম ধর্ম প্রধান ধর্ম। এর পরে খ্রিস্টান এবং অন্যান্য ধর্ম রয়েছে।

তুরস্কের সরকারি ভাষা তুর্কি। এছাড়াও এখানে আরবি, কুর্দি, গ্রীক এবং অন্যান্য ভাষা প্রচলিত।

তুরস্কে মুসলিম জনসংখ্যা কত?

২০২৩ সালের ১০ই ডিসেম্বর পর্যন্ত তুরস্কের জনসংখ্যা ৮৪.৭৮ মিলিয়ন। এর মধ্যে ৯৬.৫% মুসলিম। এর মধ্যে ৯০.২% সুন্নি মুসলিম এবং ৬.৩% শিয়া মুসলিম।

তুরস্কে ইসলাম ধর্ম প্রধান ধর্ম। তুরস্কের সংবিধানে ইসলামকে রাষ্ট্রধর্ম হিসাবে ঘোষণা করা হয়েছে। তুরস্কের সরকার ইসলাম ধর্মের নিয়মকানুন মেনে চলার চেষ্টা করে।

তুরস্কে ইসলাম ধর্মের প্রভাব অত্যন্ত ব্যাপক। তুরস্কের সংস্কৃতি, রীতিনীতি, আইনকানুন এবং শিক্ষা ব্যবস্থায় ইসলাম ধর্মের প্রভাব লক্ষ্য করা যায়।তুরস্কের রাজধানী ও মুদ্রার নাম কি

তুরস্ক ১ টাকা বাংলাদেশের কত টাকা

২০২৩ সালের ১০ই ডিসেম্বর পর্যন্ত, তুরস্ক ১ টাকা বাংলাদেশের ৩.৮১ টাকা।

তুরস্কের মুদ্রা তুর্কি লিরা। বাংলাদেশের মুদ্রা বাংলাদেশি টাকা। এই দুটি দেশের মুদ্রার বিনিময় হার প্রতিনিয়ত পরিবর্তিত হয়।তুরস্কের রাজধানী ও মুদ্রার নাম কি

আরো পড়ুনঃ  পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষা মন্ত্রীর নাম কি

তুরস্কের মুদ্রার মান

২০২৩ সালের ১০ই ডিসেম্বর পর্যন্ত, ১ মার্কিন ডলারের বিনিময় হার ২০.১০৫ তুর্কি লিরা।

তুরস্কের মুদ্রা তুর্কি লিরা। গত কয়েক বছর ধরে লিরার মান মার্কিন ডলারের বিপরীতে দ্রুত অবমূল্যায়িত হচ্ছে। ২০২৩ সালের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত লিরার মান ডলারের বিপরীতে প্রায় ৫০% অবমূল্যায়িত হয়েছে।

লিরার মান অবমূল্যায়নের বেশ কয়েকটি কারণ রয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে:

  • তুরস্কের অর্থনীতিতে ক্রমবর্ধমান মূল্যস্ফীতি।
  • তুরস্ক সরকারের অপ্রচলিত অর্থনৈতিক নীতি।
  • আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি।

লিরার মান অবমূল্যায়নের ফলে তুরস্কের আমদানি ব্যয় বেড়েছে এবং মূল্যস্ফীতি আরও বেড়েছে। এটি তুরস্কের অর্থনীতিতে নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে।

তুরস্ক সরকার লিরার মান স্থিতিশীল করার জন্য বেশ কয়েকটি পদক্ষেপ নিয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে:

  • সুদের হার বৃদ্ধি।
  • বৈদেশিক মুদ্রা রিজার্ভ বাড়ানো।
  • আমদানি নিয়ন্ত্রণ আরোপ করা।

তবে এই পদক্ষেপগুলি এখনও পর্যন্ত লিরার মান স্থিতিশীল করতে সক্ষম হয়নি।তুরস্কের রাজধানী ও মুদ্রার নাম কি

তুরস্কের বর্তমান অবস্থা

 

অর্থনীতি

তুরস্কের অর্থনীতি বর্তমানে একটি কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে রয়েছে। লিরার মান অবমূল্যায়নের ফলে তুরস্কের আমদানি ব্যয় বেড়েছে এবং মূল্যস্ফীতি আরও বেড়েছে। এটি তুরস্কের অর্থনীতিতে নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে।

তুরস্ক সরকার লিরার মান স্থিতিশীল করার জন্য বেশ কয়েকটি পদক্ষেপ নিয়েছে। তবে এই পদক্ষেপগুলি এখনও পর্যন্ত লিরার মান স্থিতিশীল করতে সক্ষম হয়নি।

রাজনীতি

তুরস্কের রাজনীতিতেও বর্তমানে একটি অস্থির অবস্থা বিরাজ করছে। ২০২৩ সালের জুন মাসে অনুষ্ঠিত সাধারণ নির্বাচনে রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ানের নেতৃত্বাধীন আধুনিক ও উন্নয়ন পার্টি (একেপি) দ্বিতীয়বারের মতো ক্ষমতায় আসে। তবে নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে ব্যাপক বিতর্ক রয়েছে।

এরদোয়ানের সরকার সমালোচকদের উপর দমন-পীড়ন চালাচ্ছে। এটি তুরস্কের গণতন্ত্রের জন্য উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।তুরস্কের রাজধানী ও মুদ্রার নাম কি

আন্তর্জাতিক সম্পর্ক

তুরস্কের আন্তর্জাতিক সম্পর্কও বর্তমানে একটি জটিল পরিস্থিতির মধ্যে রয়েছে। তুরস্কের সাথে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক শীতল হয়ে পড়েছে। তুরস্কের সাথে গ্রিসের সম্পর্কও উত্তেজনাপূর্ণ।

তুরস্কের সাথে রাশিয়ার সম্পর্কও শক্তিশালী হয়ে উঠছে। এটি তুরস্কের সাথে পশ্চিমা দেশগুলির সম্পর্ককে আরও জটিল করে তুলছে।তুরস্কের রাজধানী ও মুদ্রার নাম কি

ভবিষ্যৎ

তুরস্কের ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত। অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক এবং আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে তুরস্কের সামনে বেশ কিছু চ্যালেঞ্জ রয়েছে।

তুরস্ক সরকার যদি এই চ্যালেঞ্জগুলি মোকাবেলা করতে পারে, তাহলে তুরস্ক একটি স্থিতিশীল এবং সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে গড়ে উঠতে পারে। তবে যদি সরকার ব্যর্থ হয়, তাহলে তুরস্কের অস্থিরতা আরও বাড়তে পারে।

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top