জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আজকের নোটিশ

https://jobbd.org/%e0%a6%9c%e0%a6%be%e0%a6%a4%e0%a7%80%e0%a6%af%e0%a6%bc-%e0%a6%ac%e0%a6%bf%e0%a6%b6%e0%a7%8d%e0%a6%ac%e0%a6%ac%e0%a6%bf%e0%a6%a6%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a6%be%e0%a6%b2%e0%a6%af%e0%a6%bc%e0%a7%87%e0%a6%b0/

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আজকের নোটিশ

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আজকের নোটিশ (২০২৩-১২-২১)

  • ২০২৩ সালের ডিগ্রি(পাস) প্রাইভেট/সার্টিফিকেট কোর্সে ভর্তির অনলাইনে রেজিষ্ট্রেশন শুরু হবে আজ বিকাল ৪টা থেকে।
  • ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে মাস্টার্স শেষ পর্ব (নিয়মিত) কোর্সের ভর্তির মেধা তালিকা আগামী ১২ ডিসেম্বর বিকাল ৪ টায় প্রকাশ করা হবে।

বিস্তারিত তথ্যের জন্য জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট (www.nu.ac.bd) ভিজিট করুন।জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আজকের নোটিশ

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষার খবর

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষার খবর (২০২৩-১২-২১)

  • জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ কলেজগুলোতে ২০২২ সালের ডিগ্রি(পাস) দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষা ১১ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে।
  • ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে মাস্টার্স প্রথম পর্ব (নিয়মিত) কোর্সের পরীক্ষা ১৮ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে।
  • ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে ডিগ্রি(পাস) প্রথম বর্ষের পরীক্ষা ১ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হবে।

বিস্তারিত তথ্যের জন্য জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট (www.nu.ac.bd) ভিজিট করুন।জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আজকের নোটিশ

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষার সময়সূচি

পরীক্ষা তারিখ
ডিগ্রি(পাস) দ্বিতীয় বর্ষ ১১ জানুয়ারি থেকে ২৮ ফেব্রুয়ারি
মাস্টার্স প্রথম পর্ব (নিয়মিত) ১৮ জানুয়ারি থেকে ২৫ ফেব্রুয়ারি
ডিগ্রি(পাস) প্রথম বর্ষ ১ ফেব্রুয়ারি থেকে ২৮ ফেব্রুয়ারি

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষার কেন্দ্র

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ কলেজগুলোতে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষার কেন্দ্রগুলোর তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট হল www.nu.ac.bd। এই ওয়েবসাইটে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সমস্ত তথ্য পাওয়া যায়, যেমন পরীক্ষার সময়সূচি, ভর্তি বিজ্ঞপ্তি, ফলাফল ইত্যাদি।জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আজকের নোটিশ

ওয়েবসাইটে নিম্নলিখিত তথ্য পাওয়া যায়:

  • পরীক্ষার সময়সূচি
  • ভর্তি বিজ্ঞপ্তি
  • ফলাফল
  • নোটিশ
  • কলেজ তালিকা
  • অনলাইন ফর্ম
  • অন্যান্য তথ্য

ওয়েবসাইটটি খুবই তথ্যবহুল এবং ব্যবহার করা সহজ।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় রেজাল্ট

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজাল্ট চেক করার জন্য আপনি নিম্নলিখিত উপায়গুলি ব্যবহার করতে পারেন:

ওয়েবসাইট

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট (www.nu.ac.bd) থেকে আপনি সহজেই আপনার রেজাল্ট চেক করতে পারেন। ওয়েবসাইটের হোমপেজে যান এবং “ফলাফল” ট্যাবে ক্লিক করুন। তারপর, আপনার পরীক্ষার নাম, বছর এবং রোল নম্বর লিখুন এবং “সাবমিট” বোতামে ক্লিক করুন। আপনার রেজাল্ট প্রদর্শিত হবে।জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আজকের নোটিশ

আরো পড়ুনঃ  সিঙ্গেল ছেলেদের রোমান্টিক স্ট্যাটাস

এসএমএস

আপনি আপনার মোবাইল ফোন থেকে এসএমএস পাঠিয়েও আপনার রেজাল্ট চেক করতে পারেন। “NU” শব্দটি লিখে একটি স্পেস দিন, তারপর আপনার পরীক্ষার নাম, বছর এবং রোল নম্বর লিখুন এবং 16222 নম্বরে পাঠিয়ে দিন। আপনার রেজাল্ট ফিরতি এসএমসে পাওয়া যাবে।

মোবাইল অ্যাপ

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি মোবাইল অ্যাপ রয়েছে যার মাধ্যমে আপনি আপনার রেজাল্ট চেক করতে পারেন। অ্যাপটি Google Play Store বা App Store থেকে ডাউনলোড করুন এবং আপনার পরীক্ষার নাম, বছর এবং রোল নম্বর লিখুন। আপনার রেজাল্ট অ্যাপে প্রদর্শিত হবে।

অন্যান্য উপায়

আপনি আপনার কলেজের অধ্যক্ষ বা উপাধ্যক্ষের সাথে যোগাযোগ করেও আপনার রেজাল্ট চেক করতে পারেন। তারা আপনাকে আপনার রেজাল্ট সরবরাহ করতে সক্ষম হবেন।জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আজকের নোটিশ

রেজাল্ট চেক করার জন্য নির্দিষ্ট নির্দেশাবলী

ওয়েবসাইট

  1. জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট (www.nu.ac.bd) এ যান।
  2. হোমপেজে, “ফলাফল” ট্যাবে ক্লিক করুন।
  3. আপনার পরীক্ষার নাম, বছর এবং রোল নম্বর লিখুন।
  4. “সাবমিট” বোতামে ক্লিক করুন।
  5. আপনার রেজাল্ট প্রদর্শিত হবে।

এসএমএস

  1. আপনার মোবাইল ফোনে একটি এসএমএস পাঠান।
  2. এসএমসে “NU” লিখুন।
  3. একটি স্পেস দিন।
  4. আপনার পরীক্ষার নাম লিখুন।
  5. একটি স্পেস দিন।
  6. আপনার পরীক্ষার বছর লিখুন।
  7. একটি স্পেস দিন।
  8. আপনার রোল নম্বর লিখুন।
  9. 16222 নম্বরে পাঠান।
  10. আপনার রেজাল্ট ফিরতি এসএমসে পাবেন।

মোবাইল অ্যাপ

  1. জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মোবাইল অ্যাপটি ডাউনলোড করুন।
  2. অ্যাপটি খুলুন।
  3. “ফলাফল” ট্যাবে ক্লিক করুন।
  4. আপনার পরীক্ষার নাম, বছর এবং রোল নম্বর লিখুন।
  5. “সাবমিট” বোতামে ক্লিক করুন।
  6. আপনার রেজাল্ট অ্যাপে প্রদর্শিত হবে।

কলেজ

  1. আপনার কলেজের অধ্যক্ষ বা উপাধ্যক্ষের সাথে যোগাযোগ করুন।
  2. তাদের আপনার পরীক্ষার নাম, বছর এবং রোল নম্বর বলুন।
  3. তারা আপনাকে আপনার রেজাল্ট সরবরাহ করবেন।

মোবাইলে অনার্স রেজাল্ট দেখার নিয়ম

মোবাইলে অনার্স রেজাল্ট দেখার জন্য আপনি নিম্নলিখিত উপায়গুলি ব্যবহার করতে পারেন:

ওয়েবসাইট

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট (www.nu.ac.bd) থেকে আপনি সহজেই আপনার অনার্স রেজাল্ট চেক করতে পারেন। ওয়েবসাইটের হোমপেজে যান এবং “ফলাফল” ট্যাবে ক্লিক করুন। তারপর, “অনার্স” নির্বাচন করুন, আপনার পরীক্ষার বছর এবং রোল নম্বর লিখুন এবং “সাবমিট” বোতামে ক্লিক করুন। আপনার রেজাল্ট প্রদর্শিত হবে।জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আজকের নোটিশ

আরো পড়ুনঃ  তানিয়া নামের রাশি কি

এসএমএস

আপনি আপনার মোবাইল ফোন থেকে এসএমএস পাঠিয়েও আপনার অনার্স রেজাল্ট চেক করতে পারেন। “NU” শব্দটি লিখে একটি স্পেস দিন, তারপর “H1” (১ম বর্ষের জন্য), “H2” (২য় বর্ষের জন্য), “H3” (৩য় বর্ষের জন্য) বা “H4” (৪র্থ বর্ষের জন্য) লিখুন, একটি স্পেস দিন, আপনার পরীক্ষার বছর লিখুন, একটি স্পেস দিন, এবং আপনার রোল নম্বর লিখুন এবং 16222 নম্বরে পাঠিয়ে দিন। আপনার রেজাল্ট ফিরতি এসএমসে পাওয়া যাবে।

মোবাইল অ্যাপ

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি মোবাইল অ্যাপ রয়েছে যার মাধ্যমে আপনি আপনার অনার্স রেজাল্ট চেক করতে পারেন। অ্যাপটি Google Play Store বা App Store থেকে ডাউনলোড করুন এবং “ফলাফল” ট্যাবে ক্লিক করুন। তারপর, “অনার্স” নির্বাচন করুন, আপনার পরীক্ষার বছর এবং রোল নম্বর লিখুন। আপনার রেজাল্ট অ্যাপে প্রদর্শিত হবে।জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আজকের নোটিশ

রেজাল্ট চেক করার জন্য নির্দিষ্ট নির্দেশাবলী

ওয়েবসাইট

  1. আপনার মোবাইলের ব্রাউজারে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট (www.nu.ac.bd) এ যান।
  2. হোমপেজে, “ফলাফল” ট্যাবে ক্লিক করুন।
  3. “অনার্স” নির্বাচন করুন।
  4. আপনার পরীক্ষার বছর নির্বাচন করুন।
  5. আপনার রোল নম্বর লিখুন।
  6. “সাবমিট” বোতামে ক্লিক করুন।
  7. আপনার রেজাল্ট প্রদর্শিত হবে।

এসএমএস

  1. আপনার মোবাইল ফোনে একটি এসএমএস পাঠান।
  2. এসএমসে “NU” লিখুন।
  3. একটি স্পেস দিন।
  4. “H1”, “H2”, “H3” বা “H4” লিখুন।
  5. একটি স্পেস দিন।
  6. আপনার পরীক্ষার বছর লিখুন।
  7. একটি স্পেস দিন।
  8. আপনার রোল নম্বর লিখুন।
  9. 16222 নম্বরে পাঠান।
  10. আপনার রেজাল্ট ফিরতি এসএমসে পাবেন।

মোবাইল অ্যাপ

  1. আপনার মোবাইলে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মোবাইল অ্যাপটি ডাউনলোড করুন।
  2. অ্যাপটি খুলুন।
  3. “ফলাফল” ট্যাবে ক্লিক করুন।
  4. “অনার্স” নির্বাচন করুন।
  5. আপনার পরীক্ষার বছর নির্বাচন করুন।
  6. আপনার রোল নম্বর লিখুন।
  7. “সাবমিট” বোতামে ক্লিক করুন।
  8. আপনার রেজাল্ট অ্যাপে প্রদর্শিত হবে।

টিপস

  • আপনার পরীক্ষার বছর সঠিকভাবে নির্বাচন করুন।
  • আপনার রোল নম্বর সঠিকভাবে লিখুন।
  • এসএমএস পাঠানোর সময় অবশ্যই স্পেস দিন।
  • অ্যাপটি ডাউনলোড করার সময় অবশ্যই সঠিক অ্যাপটি ডাউনলোড করুন।

আশা করি এই নির্দেশাবলী আপনাকে আপনার অনার্স রেজাল্ট চেক করতে সাহায্য করবে।জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আজকের নোটিশ

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় রেজাল্ট পয়েন্ট হিসাব

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজাল্ট পয়েন্ট হিসাবের জন্য নিম্নলিখিত নিয়মগুলি অনুসরণ করা হয়:

  • প্রতিটি বিষয়ের জন্য প্রাপ্ত গ্রেডের সাথে একটি পয়েন্ট সংযুক্ত থাকে।
  • প্রতিটি বর্ষের জন্য প্রাপ্ত পয়েন্ট যোগ করে মোট পয়েন্ট পাওয়া যায়।
  • মোট পয়েন্টকে মোট বিষয় সংখ্যা দিয়ে ভাগ করে সিজিপিএ পাওয়া যায়।
আরো পড়ুনঃ  ভারত বনাম পাকিস্তান টেস্ট পরিসংখ্যান

গ্রেড এবং পয়েন্টের সম্পর্ক নিম্নরূপ:

| গ্রেড | পয়েন্ট | |—|—|—| | A+ | 4.00 | | A | 3.75 | | A- | 3.50 | | B+ | 3.25 | | B | 3.00 | | B- | 2.75 | | C+ | 2.50 | | C | 2.25 | | D | 2.00 | | F | 0.00 |

উদাহরণস্বরূপ, একজন শিক্ষার্থী যদি একটি বর্ষের পরীক্ষায় ৫টি বিষয়ে A+, ২টি বিষয়ে A এবং ১টি বিষয়ে B+ পায়, তাহলে তার মোট পয়েন্ট হবে:

(5 * 4.00) + (2 * 3.75) + (1 * 3.25) = 29.00

এবং তার সিজিপিএ হবে:

29.00 / 8 = 3.625

অতএব, শিক্ষার্থীর সিজিপিএ হবে 3.625।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজাল্ট পয়েন্ট হিসাবের জন্য একটি সহজ সূত্র হল:

সিজিপিএ = (মোট পয়েন্ট / মোট বিষয় সংখ্যা) * 100

এই সূত্রটি ব্যবহার করে, উপরের উদাহরণের ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীর সিজিপিএ হবে:

(29.00 / 8) * 100 = 36.25

এবং উত্তরটি হবে একই: 3.625।জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আজকের নোটিশ

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিজিপিএ বের করার নিয়ম

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিজিপিএ বের করার জন্য নিম্নলিখিত নিয়মগুলি অনুসরণ করা হয়:

  • প্রতিটি বিষয়ের জন্য প্রাপ্ত গ্রেডের সাথে একটি পয়েন্ট সংযুক্ত থাকে।
  • প্রতিটি বর্ষের জন্য প্রাপ্ত পয়েন্ট যোগ করে মোট পয়েন্ট পাওয়া যায়।
  • মোট পয়েন্টকে মোট বিষয় সংখ্যা দিয়ে ভাগ করে সিজিপিএ পাওয়া যায়।

গ্রেড এবং পয়েন্টের সম্পর্ক নিম্নরূপ:

| গ্রেড | পয়েন্ট | |—|—|—| | A+ | 4.00 | | A | 3.75 | | A- | 3.50 | | B+ | 3.25 | | B | 3.00 | | B- | 2.75 | | C+ | 2.50 | | C | 2.25 | | D | 2.00 | | F | 0.00 |

উদাহরণস্বরূপ, একজন শিক্ষার্থী যদি একটি বর্ষের পরীক্ষায় ৫টি বিষয়ে A+, ২টি বিষয়ে A এবং ১টি বিষয়ে B+ পায়, তাহলে তার মোট পয়েন্ট হবে:

(5 * 4.00) + (2 * 3.75) + (1 * 3.25) = 29.00

এবং তার সিজিপিএ হবে:

29.00 / 8 = 3.625

অতএব, শিক্ষার্থীর সিজিপিএ হবে 3.625।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিজিপিএ বের করার জন্য একটি সহজ সূত্র হল:

সিজিপিএ = (মোট পয়েন্ট / মোট বিষয় সংখ্যা) * 100

এই সূত্রটি ব্যবহার করে, উপরের উদাহরণের ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীর সিজিপিএ হবে:

(29.00 / 8) * 100 = 36.25

এবং উত্তরটি হবে একই: 3.625।

সিজিপিএ নির্ধারণের ক্ষেত্রে বিষয়ের ক্রেডিট বিবেচনা করা হয় না। অর্থাৎ, প্রতিটি বিষয়ের জন্য পয়েন্ট একই।

সিজিপিএ ৪.০০ এর বেশি হতে পারে না।

সিজিপিএ ০.০০ এর কম হলে শিক্ষার্থীর অকৃতকার্য ঘোষণা করা হবে।জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আজকের নোটিশ

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিজিপিএ নির্ধারণের ক্ষেত্রে কোন নির্দিষ্ট বিভাগ বা বিষয়ের জন্য আলাদা কোন নিয়ম নেই।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top