আগামীকাল কি সরকারি ছুটি

https://jobbd.org/%e0%a6%86%e0%a6%97%e0%a6%be%e0%a6%ae%e0%a7%80%e0%a6%95%e0%a6%be%e0%a6%b2-%e0%a6%95%e0%a6%bf-%e0%a6%b8%e0%a6%b0%e0%a6%95%e0%a6%be%e0%a6%b0%e0%a6%bf-%e0%a6%9b%e0%a7%81%e0%a6%9f%e0%a6%bf/

আগামীকাল কি সরকারি ছুটি

বাংলাদেশ সরকার প্রতি বছর একটি ছুটির তালিকা প্রকাশ করে। এই তালিকা অনুযায়ী, আগামীকাল কোন সরকারি ছুটি নেই। তবে, কিছু সরকারি প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব ছুটির নীতিমালা থাকতে পারে। সেই ক্ষেত্রে সেই প্রতিষ্ঠানের ছুটির নীতিমালা অনুযায়ী আগামীকাল ছুটি হতে পারে।আগামীকাল কি সরকারি ছুটি

পূজার ছুটি কবে থেকে ২০২৩?

২০২৩ সালের পূজার ছুটি শুরু হবে ২০ অক্টোবর, শুক্রবার থেকে। এই ছুটি চলবে ২৩ অক্টোবর, সোমবার পর্যন্ত। অর্থাৎ, মোট ছুটি থাকবে ৪ দিন

নির্দিষ্ট দিনসমূহ:

  • ২০ অক্টোবর, শুক্রবার: দুর্গাপূজার চতুর্থী
  • ২১ অক্টোবর, শনিবার: দুর্গাপূজার পঞ্চমী
  • ২২ অক্টোবর, রোববার: দুর্গাপূজার ষষ্ঠী
  • ২৩ অক্টোবর, সোমবার: দুর্গাপূজার সপ্তমী

দুর্গাপূজা বা দেবীপক্ষ হল হিন্দুদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব। এই উৎসবটি সাধারণত আশ্বিন মাসের শুক্লপক্ষের ষষ্ঠী থেকে সপ্তমী তিথি পর্যন্ত পালিত হয়। দুর্গাপূজায় দেবী দুর্গার মূর্তি গড়ে পূজা করা হয়। এই উৎসবটিকে শারদীয় দুর্গাপূজাও বলা হয়।আগামীকাল কি সরকারি ছুটি

জন্মাষ্টমী ২০২৩ কি সরকারি ছুটি?

হ্যাঁ, ২০২৩ সালের জন্মাষ্টমী সরকারি ছুটি। জন্মাষ্টমী হল হিন্দুদের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব। এই উৎসবটিতে ভগবান শ্রীকৃষ্ণের জন্মদিন পালিত হয়।

২০২৩ সালের জন্মাষ্টমী ৬ সেপ্টেম্বর, বুধবার। এই দিনটি বাংলাদেশের একটি সরকারি ছুটি।আগামীকাল কি সরকারি ছুটি

2023 সালে কর্ণাটকের সরকারি ছুটির সংখ্যা কত

2023 সালে কর্ণাটকের সরকারি ছুটির সংখ্যা মোট 29টি। এর মধ্যে 18টি সাধারণ সরকারি ছুটি এবং 11টি ধর্মীয় সরকারি ছুটি।আগামীকাল কি সরকারি ছুটি

সাধারণ সরকারি ছুটি:

  • ১ জানুয়ারি, রবিবার: নতুন বছর
  • ২৬ জানুয়ারি, মঙ্গলবার: প্রজাতন্ত্র দিবস
  • ১৫ আগস্ট, সোমবার: স্বাধীনতা দিবস
  • ২ অক্টোবর, রবিবার: মহাত্মা গান্ধী জয়ন্তী
  • ২ অক্টোবর, রবিবার: কার্তিক পূর্ণিমা
  • ২২ অক্টোবর, বৃহস্পতিবার: গুরু নানক জয়ন্তী
  • ২৬ অক্টোবর, সোমবার: ঈদুল ফিতর (প্রথম দিন)
  • ২৮ অক্টোবর, বুধবার: ঈদুল ফিতর (দ্বিতীয় দিন)
  • ১৫ নভেম্বর, রবিবার: বড়দিন
আরো পড়ুনঃ  ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রীর নাম কি

ধর্মীয় সরকারি ছুটি:

  • ২রা ফেব্রুয়ারি, রবিবার: শিবরাত্রি
  • ১০ মার্চ, শুক্রবার: হনুমান জয়ন্তী
  • ১৪ এপ্রিল, শুক্রবার: গুরু গোবিন্দ সিং জয়ন্তী
  • ২রা মে, রবিবার: মহম্মদ বিন কাসিম জয়ন্তী
  • ৯ জুন, শুক্রবার: বুদ্ধ পূর্ণিমা
  • ৭ আগস্ট, রবিবার: ইদুল আজহা (প্রথম দিন)
  • ৯ আগস্ট, মঙ্গলবার: ইদুল আজহা (দ্বিতীয় দিন)
  • ২রা নভেম্বর, বৃহস্পতিবার: দীপাবলি
  • ৭ নভেম্বর, মঙ্গলবার: ছট্‌পুজো
  • ১৪ নভেম্বর, রবিবার: দুর্গাপূজা (চতুর্থী)
  • ১৫ নভেম্বর, সোমবার: দুর্গাপূজা (পঞ্চমী)
  • ১৬ নভেম্বর, মঙ্গলবার: দুর্গাপূজা (ষষ্ঠী)
  • ১৭ নভেম্বর, বুধবার: দুর্গাপূজা (সপ্তমী)

কর্ণাটকের সরকারি ছুটিগুলি রাজ্যের সরকারী কর্মচারীদের জন্য প্রযোজ্য। বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলি তাদের নিজস্ব ছুটির নীতিমালা অনুসরণ করতে পারে।আগামীকাল কি সরকারি ছুটি

আশুরার বন্ধ কত তারিখ ২০২৩?

২০২৩ সালের আশুরা ২৯ জুলাই, বৃহস্পতিবার। এই দিনটি বাংলাদেশের একটি সরকারি ছুটি।

আশুরা হল ইসলামের একটি গুরুত্বপূর্ণ ধর্মীয় উৎসব। এই দিনটিকে শিয়া মুসলিমরা কারবালা প্রান্তরে হোসাইন ইবনে আলি এবং তাঁর পরিবারের সদস্যদের শাহাদত বরণের শোকের ঘটনাকে কেন্দ্র করে পালন করে।

জন্মাষ্টমীতে কি বাজার খোলা থাকবে

জন্মাষ্টমীতে বাজার খোলা থাকবে না। জন্মাষ্টমী হল হিন্দুদের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব। এই উৎসবটিতে ভগবান শ্রীকৃষ্ণের জন্মদিন পালিত হয়। জন্মাষ্টমী হল একটি সরকারি ছুটি। তাই, এই দিনটিতে সরকারি এবং বেসরকারি সকল প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকে।

তবে, কিছু কিছু বাজার বিশেষ করে খাদ্য বাজার এবং দোকানপাট জন্মাষ্টমীর দিন খোলা থাকতে পারে। তবে, এই বাজারগুলিতে সাধারনত স্বাভাবিকের চেয়ে ভিড় বেশি থাকে। তাই, জন্মাষ্টমীতে কেনাকাটা করতে গেলে আগে থেকেই পরিকল্পনা করে নেওয়া ভালো।আগামীকাল কি সরকারি ছুটি

২০২৩ সালের জন্মাষ্টমী ৬ সেপ্টেম্বর, বুধবার। এই দিনটিতে বাংলাদেশসহ ভারত, নেপাল, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ, ভুটান, মিয়ানমার, ইন্দোনেশিয়া, থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড এবং উত্তর আমেরিকা ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে জন্মাষ্টমী পালিত হবে।

বছরে সরকারি ছুটি মোট কত দিন?

এক বছরে সরকারি ছুটির সংখ্যা বিভিন্ন দেশে ভিন্ন ভিন্ন হয়। সাধারণত, বছরে ১০ থেকে ৩০ দিনের মধ্যে সরকারি ছুটি থাকে।

আরো পড়ুনঃ  মাকে নিয়ে লেখা কিছু কথা

বাংলাদেশে বছরে ১৯ দিন সরকারি ছুটি থাকে। এর মধ্যে ১৪ দিন সাধারণ সরকারি ছুটি এবং ৫ দিন ধর্মীয় সরকারি ছুটি।

ভারতে বছরে ৩০ দিনের বেশি সরকারি ছুটি থাকে। এর মধ্যে ১৬ দিন সাধারণ সরকারি ছুটি এবং ১৪ দিন ধর্মীয় সরকারি ছুটি।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বছরে ১০ থেকে ১১ দিন সরকারি ছুটি থাকে। এর মধ্যে ৭ দিন সাধারণ সরকারি ছুটি এবং ৩ দিন ধর্মীয় সরকারি ছুটি।আগামীকাল কি সরকারি ছুটি

যুক্তরাজ্যে বছরে ১১ থেকে ১২ দিন সরকারি ছুটি থাকে। এর মধ্যে ৮ দিন সাধারণ সরকারি ছুটি এবং ৩ দিন ধর্মীয় সরকারি ছুটি।

জাপানে বছরে ১৬ দিন সরকারি ছুটি থাকে। এর মধ্যে ১৩ দিন সাধারণ সরকারি ছুটি এবং ৩ দিন ধর্মীয় সরকারি ছুটি।

চীনে বছরে ১১ দিন সরকারি ছুটি থাকে। এর মধ্যে ৮ দিন সাধারণ সরকারি ছুটি এবং ৩ দিন ধর্মীয় সরকারি ছুটি।

২০২৩ সালের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটির তালিকা

বাংলাদেশে ২০২৩ সালের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটির তালিকা:

সাধারণ ছুটি:

  • ১ জানুয়ারি, রবিবার: নতুন বছর
  • ২৬ জানুয়ারি, মঙ্গলবার: প্রজাতন্ত্র দিবস
  • ১৫ আগস্ট, সোমবার: স্বাধীনতা দিবস
  • ২ অক্টোবর, রবিবার: মহাত্মা গান্ধী জয়ন্তী
  • ২৬ অক্টোবর, সোমবার: ঈদুল ফিতর (প্রথম দিন)
  • ২৮ অক্টোবর, বুধবার: ঈদুল ফিতর (দ্বিতীয় দিন)
  • ১৫ নভেম্বর, রবিবার: বড়দিন

ধর্মীয় ছুটি:

  • ২রা ফেব্রুয়ারি, রবিবার: শিবরাত্রি
  • ১০ মার্চ, শুক্রবার: হনুমান জয়ন্তী
  • ১৪ এপ্রিল, শুক্রবার: গুরু গোবিন্দ সিং জয়ন্তী
  • ২রা মে, রবিবার: মহম্মদ বিন কাসিম জয়ন্তী
  • ৯ জুন, শুক্রবার: বুদ্ধ পূর্ণিমা
  • ৭ আগস্ট, রবিবার: ইদুল আজহা (প্রথম দিন)
  • ৯ আগস্ট, মঙ্গলবার: ইদুল আজহা (দ্বিতীয় দিন)
  • ২রা নভেম্বর, বৃহস্পতিবার: দীপাবলি
  • ৭ নভেম্বর, মঙ্গলবার: ছট্‌পুজো
  • ১৪ নভেম্বর, রবিবার: দুর্গাপূজা (চতুর্থী)
  • ১৫ নভেম্বর, সোমবার: দুর্গাপূজা (পঞ্চমী)
  • ১৬ নভেম্বর, মঙ্গলবার: দুর্গাপূজা (ষষ্ঠী)
  • ১৭ নভেম্বর, বুধবার: দুর্গাপূজা (সপ্তমী)
  • ২৮ ডিসেম্বর, শুক্রবার: বৈশাখী নববর্ষ
আরো পড়ুনঃ  পশ্চিমবঙ্গের বর্তমান অর্থমন্ত্রীর নাম কি 2022

উল্লেখ্য যে, এই তালিকাটি শুধুমাত্র বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য প্রযোজ্য। বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি তাদের নিজস্ব ছুটির নীতিমালা অনুসরণ করতে পারে।

এছাড়াও, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিতে বিভিন্ন কারণে বিশেষ ছুটি ঘোষণা করা হতে পারে। যেমন, প্রাকৃতিক দুর্যোগ, রাজনৈতিক অস্থিরতা, বা অন্যান্য কারণে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকতে পারে।আগামীকাল কি সরকারি ছুটি

শিক্ষকরা কত সপ্তাহের ছুটি পান

শিক্ষকদের ছুটির সংখ্যা নির্ভর করে তারা কোন স্তরের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কাজ করেন তার উপর।

বাংলাদেশে, প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা প্রতি বছর ২৯ দিন সরকারি ছুটি পান। এর মধ্যে ১৮টি সাধারণ ছুটি এবং ১১টি ধর্মীয় ছুটি।

মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা প্রতি বছর ৩০ দিন সরকারি ছুটি পান। এর মধ্যে ১৯টি সাধারণ ছুটি এবং ১১টি ধর্মীয় ছুটি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা প্রতি বছর ৩১ দিন সরকারি ছুটি পান। এর মধ্যে ২০টি সাধারণ ছুটি এবং ১১টি ধর্মীয় ছুটি।আগামীকাল কি সরকারি ছুটি

এছাড়াও, শিক্ষকরা বিভিন্ন কারণে বিশেষ ছুটি পেতে পারেন। যেমন, অসুস্থতা, বিবাহ, বা অন্যান্য ব্যক্তিগত কারণ।

সাধারণত, শিক্ষকরা প্রতি বছর ৩ থেকে ৪ সপ্তাহের ছুটি পান।

উল্লেখ্য যে, এই ছুটির নীতিমালা শুধুমাত্র বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য প্রযোজ্য। বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি তাদের নিজস্ব নীতিমালা অনুসরণ করতে পারে।

শিক্ষকরা কি বার্ষিক ছুটি পান

হ্যাঁ, শিক্ষকরা বার্ষিক ছুটি পান। বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা প্রতি বছর ৩ থেকে ৪ সপ্তাহের বার্ষিক ছুটি পান। এই ছুটিগুলিতে তারা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উপস্থিত থাকার বা কাজ করার প্রয়োজন হয় না।

বার্ষিক ছুটি ছাড়াও, শিক্ষকরা বিভিন্ন কারণে বিশেষ ছুটি পেতে পারেন। যেমন, অসুস্থতা, বিবাহ, বা অন্যান্য ব্যক্তিগত কারণ।আগামীকাল কি সরকারি ছুটি

শিক্ষকদের ছুটির সংখ্যা নির্ভর করে তারা কোন স্তরের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কাজ করেন তার উপর। প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা প্রতি বছর ২৯ দিন সরকারি ছুটি পান। মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা প্রতি বছর ৩০ দিন সরকারি ছুটি পান। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা প্রতি বছর ৩১ দিন সরকারি ছুটি পান।

শিক্ষকদের ছুটির নীতিমালা বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক নির্ধারিত হয়।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top