পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দল খেলোয়াড়

https://jobbd.org/%e0%a6%aa%e0%a6%be%e0%a6%95%e0%a6%bf%e0%a6%b8%e0%a7%8d%e0%a6%a4%e0%a6%be%e0%a6%a8-%e0%a6%9c%e0%a6%be%e0%a6%a4%e0%a7%80%e0%a6%af%e0%a6%bc-%e0%a6%95%e0%a7%8d%e0%a6%b0%e0%a6%bf%e0%a6%95%e0%a7%87%e0%a6%9f/

পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দল খেলোয়াড়

পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দল বর্তমানে টেস্ট, ওডিআই এবং টি-টোয়েন্টি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার জন্য আইসিসির পূর্ণ সদস্য। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) এই দলটি পরিচালনা করে।

বর্তমান দল

  • অধিনায়ক: বাবর আজম
  • সহ-অধিনায়ক: মোহাম্মদ রিজওয়ান
  • উইকেট-রক্ষক: মোহাম্মদ রিজওয়ান
  • ওপেনার: ফখর জামান, হায়দার আলী
  • মিডল-অর্ডার: ইমাম-উল-হক, মোহাম্মদ নওয়াজ, আশরাফুল রহমান, মোহাম্মদ হাফিজ
  • অল-রাউন্ডার: শাহীন আফ্রিদি, শহীদ আফ্রিদি
  • বোলার: মোহাম্মদ হাসান, শাহিন শাহ আফ্রিদি, হারিস রউফ, শাহিন শাহ আফ্রিদি

অন্যান্য খেলোয়াড়

  • আসিফ আলী
  • আজাম বাট
  • আলি খান
  • আলি উসমান
  • ফাওয়াদ আলম
  • ফাওয়াদ ইমাম
  • জাহাঙ্গীর শাহ
  • খালিদ আহমেদ
  • মোহাম্মদ ইয়ামিন
  • মোহাম্মদ শাদাব খান
  • মোহাম্মদ ওয়াসিম
  • নবাব সাদ
  • নূর আলী
  • সোহেল আহমেদ
  • ওয়াসিম জাফর

ঐতিহাসিক খেলোয়াড়

  • জাভেদ মিয়াঁদাদ
  • জাহিদ আখতার
  • রানা নওয়াজ
  • ওয়াসিম আকরাম
  • সাকলাইন মুশতাক
  • ইমরান খানের
  • ইয়াসির আহমেদ
  • শোয়েব আখতার
  • সামি উল হাসান

উল্লেখযোগ্য অর্জন

  • টেস্ট বিশ্বকাপ: বিজয়ী (১৯৯২)
  • ওডিআই বিশ্বকাপ: রানার্স-আপ (১৯৯৯)
  • টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ: রানার্স-আপ (২০০৯)

পাকিস্তান ক্রিকেট দল বিশ্ব ক্রিকেটের অন্যতম শক্তিশালী দল। তারা টেস্ট, ওডিআই এবং টি-টোয়েন্টি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে উল্লেখযোগ্য সাফল্য অর্জন করেছে।পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দল খেলোয়াড়

পাকিস্তান ক্রিকেট দল ঘোষণা

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) আজ, ২৪ ডিসেম্বর ২০২৩, ২০২৩-২৪ মৌসুমের জন্য পাকিস্তানের টেস্ট, ওডিআই এবং টি-টোয়েন্টি দল ঘোষণা করেছে।

টেস্ট দল

  • অধিনায়ক: বাবর আজম
  • সহ-অধিনায়ক: মোহাম্মদ রিজওয়ান
  • উইকেট-রক্ষক: মোহাম্মদ রিজওয়ান
  • ওপেনার: ফখর জামান, ইমাম-উল-হক
  • মিডল-অর্ডার: আবদুল্লাহ শফিক, ইয়াসির শাহ, মোহাম্মদ হাফিজ
  • অল-রাউন্ডার: শাহীন আফ্রিদি, শহীদ আফ্রিদি
  • বোলার: মোহাম্মদ হাসান, শাহিন শাহ আফ্রিদি, হারিস রউফ, নাসিম শাহ, মোহাম্মদ ওয়াসিম জুনিয়র

ওডিআই দল

  • অধিনায়ক: বাবর আজম
  • সহ-অধিনায়ক: মোহাম্মদ রিজওয়ান
  • উইকেট-রক্ষক: মোহাম্মদ রিজওয়ান
  • ওপেনার: ফখর জামান, ইমাম-উল-হক
  • মিডল-অর্ডার: আবদুল্লাহ শফিক, মোহাম্মদ রিয়াজ, মোহাম্মদ হাফিজ
  • অল-রাউন্ডার: শাহীন আফ্রিদি, শহীদ আফ্রিদি
  • বোলার: মোহাম্মদ হাসান, শাহিন শাহ আফ্রিদি, হারিস রউফ, নাসিম শাহ, মোহাম্মদ ওয়াসিম জুনিয়র
আরো পড়ুনঃ  নুপুর শর্মা কি বলেছিলেন

টি-টোয়েন্টি দল

  • অধিনায়ক: বাবর আজম
  • সহ-অধিনায়ক: মোহাম্মদ রিজওয়ান
  • উইকেট-রক্ষক: মোহাম্মদ রিজওয়ান
  • ওপেনার: ফখর জামান, ইমাম-উল-হক
  • মিডল-অর্ডার: আবদুল্লাহ শফিক, মোহাম্মদ রিয়াজ, মোহাম্মদ হাফিজ, সায়েম আইয়ুব
  • অল-রাউন্ডার: শাহীন আফ্রিদি, শহীদ আফ্রিদি, ইফতিখার আহমেদ
  • বোলার: মোহাম্মদ হাসান, শাহিন শাহ আফ্রিদি, হারিস রউফ, মোহাম্মদ ওয়াসিম জুনিয়র, সৌদ শাকিল, মোহাম্মদ নাওয়াজ

উল্লেখযোগ্য বিষয়:

  • শাহিন শাহ আফ্রিদিকে টেস্ট, ওডিআই এবং টি-টোয়েন্টি সব ফরম্যাটের জন্য অধিনায়ক করা হয়েছে।
  • মোহাম্মদ রিজওয়ানকে টেস্ট, ওডিআই এবং টি-টোয়েন্টি সব ফরম্যাটের জন্য সহ-অধিনায়ক করা হয়েছে।
  • নাসিম শাহকে টেস্ট দলে ফিরিয়ে আনা হয়েছে।
  • হাসান আলীকে টি-টোয়েন্টি দলে ফিরিয়ে আনা হয়েছে।

পাকিস্তান ক্রিকেট দল ২০২৩-২৪ মৌসুমে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সিরিজ খেলবে।

  • টেস্ট:
    • শ্রীলঙ্কা সফর (১-১০ আগস্ট)
    • নিউজিল্যান্ড সফর (১৮ নভেম্বর-৬ ডিসেম্বর)
  • ওডিআই:
    • শ্রীলঙ্কা সফর (১২-১৮ আগস্ট)
  • টি-টোয়েন্টি:
    • শ্রীলঙ্কা সফর (২৩-২৮ আগস্ট)
    • ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর (৫-১৬ ফেব্রুয়ারি)
    • অস্ট্রেলিয়া সফর (২৪ অক্টোবর-৪ নভেম্বর)

পাকিস্তান ক্রিকেট নিউজ

পাকিস্তান ক্রিকেট নিউজ:

  • **পাকিস্তান ক্রিকেট দল ২০২৩-২৪ মৌসুমের জন্য নতুন অধিনায়ক পেয়েছে। **

  • শাহিন শাহ আফ্রিদিকে টেস্ট, ওডিআই এবং টি-টোয়েন্টি সব ফরম্যাটের জন্য অধিনায়ক করা হয়েছে।

  • মোহাম্মদ রিজওয়ানকে টেস্ট, ওডিআই এবং টি-টোয়েন্টি সব ফরম্যাটের জন্য সহ-অধিনায়ক করা হয়েছে।

  • পাকিস্তান ক্রিকেট দল ২০২৩-২৪ মৌসুমে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সিরিজ খেলবে।

  • পাকিস্তান ক্রিকেট দল শ্রীলঙ্কা সফর করবে আগস্ট মাসে।

  • পাকিস্তান ক্রিকেট দল নিউজিল্যান্ড সফর করবে নভেম্বর-ডিসেম্বর মাসে।

  • পাকিস্তান ক্রিকেট দল ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর করবে ফেব্রুয়ারি মাসে।

  • পাকিস্তান ক্রিকেট দল অস্ট্রেলিয়া সফর করবে অক্টোবর-নভেম্বর মাসে।

**পাকিস্তান ক্রিকেট দলের জন্য ২০২৩-২৪ মৌসুম একটি গুরুত্বপূর্ণ মৌসুম হবে। **পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দল খেলোয়াড়

দলটি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তাদের অবস্থান উন্নত করার জন্য কঠোর পরিশ্রম করছে।

ভারত জাতীয় ক্রিকেট দল বনাম পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দল ম্যাচের স্কোরকার্ড

ভারত জাতীয় ক্রিকেট দল বনাম পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দল ম্যাচের স্কোরকার্ড

ম্যাচের তারিখ: 2023-10-14 ম্যাচের স্থান: নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়াম, আহমেদাবাদ, ভারত ফরম্যাট: ওয়ানডে

আরো পড়ুনঃ  মা বাবাকে নিয়ে গল্প

টস: ভারত জিতল এবং বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নিল

ভারত:

  • রোহিত শর্মা (অধিনায়ক) 68 (57)
  • শিখর ধাওয়ান 31 (32)
  • বিরাট কোহলি 17 (28)
  • শ্রেয়স আইয়ার 52 (50)
  • রবীন্দ্র জাদেজা 34 (36)
  • হার্দিক পান্ডিয়া 64* (38)
  • রবিচন্দ্রন অশ্বিন 0 (0)
  • যুজবেন্দ্র চাহাল 0 (0)
  • মোহাম্মদ শামি 1 (0)

মোট: 252/9 (50 ওভার)

পাকিস্তান:

  • ফখর জামান 27 (28)
  • ইমাম-উল-হক 70 (77)
  • বাবর আজম 117* (108)
  • মোহাম্মদ রিয়াজ 18 (24)
  • মোহাম্মদ হাফিজ 17 (20)
  • শাহীন শাহ আফ্রিদি 12 (12)
  • হাসান আলী 0 (0)
  • শাহিন শাহ আফ্রিদি 0 (0)
  • হারিস রউফ 0 (0)

মোট: 253/7 (50 ওভার)

ফল: পাকিস্তান ৭ উইকেটে জয়ী

ম্যান অব দ্য ম্যাচ: বাবর আজম (পাকিস্তান)

ভারতের সেরা বোলার: মোহাম্মদ শামি (৩/৪৩)

পাকিস্তানের সেরা বোলার: শাহিন শাহ আফ্রিদি (২/৩৬)

ম্যাচের বিস্তারিত বিবরণ:

ভারত টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়। পাকিস্তানের ওপেনার ফখর জামান এবং ইমাম-উল-হক ভালো শুরু দেয়। তারা প্রথম উইকেট জুটিতে ৫০ রান যোগ করে। ইমাম-উল-হক ৭০ রানের একটি ঝলমলে ইনিংস খেলেন। তিনি ১০৮ বলে ৯টি চার এবং ২টি ছক্কা হাঁকান। বাবর আজমও দারুণ ব্যাটিং করেন। তিনি ১০৮ বলে ১১৭ রান করেন। তিনি ১২টি চার এবং ১টি ছক্কা হাঁকান। পাকিস্তান ৫০ ওভারে ৭ উইকেটে ২৫৩ রান করে।পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দল খেলোয়াড়

ভারত শুরুটা ভালো করে। রোহিত শর্মা এবং শিখর ধাওয়ান প্রথম উইকেট জুটিতে ৬৫ রান যোগ করে। রোহিত শর্মা ৬৮ রানে আউট হন। বিরাট কোহলি ১৭ রানে আউট হন। শ্রেয়স আইয়ার ৫২ রানে আউট হন। রবীন্দ্র জাদেজা ৩৪ রানে আউট হন। হার্দিক পান্ডিয়া ৬৪ রানে অপরাজিত থাকেন। তিনি ৩৮ বলে ৫টি চার এবং ১টি ছক্কা হাঁকান। মোহাম্মদ শামি এবং যুজবেন্দ্র চাহাল ০ রানে আউট হন। ভারত ৫০ ওভারে ৯ উইকেটে ২৫২ রান করে।

পাকিস্তান ৭ উইকেটে জয়লাভ করে। বাবর আজমকে ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কার দেওয়া হয়।পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দল খেলোয়াড়

পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশ কতবার জিতেছে

পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশ ওয়ানডেতে মোট ৩৪ ম্যাচ খেলেছে। এর মধ্যে বাংলাদেশ জিতেছে ৩টি ম্যাচ, পাকিস্তান জিতেছে ৩১টি ম্যাচ।পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দল খেলোয়াড়

আরো পড়ুনঃ  বাংলাদেশ ব্যাংকের বর্তমান গভর্নর কে

বাংলাদেশের ৩টি জয়ের মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য হল ১৯৯৯ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে ৬২ রানের জয়। এটি ছিল বাংলাদেশী ক্রিকেটের ইতিহাসে একটি ঐতিহাসিক জয়।

বাংলাদেশের সর্বশেষ জয় পাকিস্তানের বিপক্ষে ২০১৯ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপে। সেই ম্যাচে বাংলাদেশ পাকিস্তানকে ৯৪ রানে হারিয়েছিল।পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দল খেলোয়াড়

পাকিস্তানের রাজধানীর নাম কি?

পাকিস্তানের রাজধানীর নাম ইসলামাবাদ। এটি পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় প্রদেশ ইসলামাবাদ অঞ্চলের একটি শহর। এটি পাকিস্তানের পূর্বের রাজধানী রাওয়ালপিন্ডি থেকে প্রায় পূর্বে অবস্থিত।

ইসলামাবাদ ১৯৬০-এর দশকে পাকিস্তানের নতুন রাজধানী হিসেবে নির্মিত হয়েছিল। এটি একটি পরিকল্পিত শহর এবং এটি পাকিস্তানের রাজনৈতিক, প্রশাসনিক এবং সাংস্কৃতিক কেন্দ্র।পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দল খেলোয়াড়

ইসলামাবাদ একটি আধুনিক শহর এবং এটিতে অনেক সরকারি ভবন, মসজিদ, পার্ক এবং অন্যান্য দর্শনীয় স্থান রয়েছে।

বাংলাদেশ বনাম পাকিস্তান

বাংলাদেশ এবং পাকিস্তান দুটি প্রতিবেশী দেশ এবং তাদের মধ্যে দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক এবং সাংস্কৃতিক সম্পর্ক রয়েছে। ক্রিকেট দুটি দেশের মধ্যে একটি জনপ্রিয় খেলা এবং তাদের মধ্যে ক্রিকেট ম্যাচগুলি সবসময়ই উত্তেজনাপূর্ণ এবং জমজমাট হয়।পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দল খেলোয়াড়

ক্রিকেটে বাংলাদেশ এবং পাকিস্তানের মধ্যে দীর্ঘদিনের প্রতিদ্বন্দ্বিতা রয়েছে। দুই দল একে অপরের বিরুদ্ধে মোট ১৬২টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছে, যার মধ্যে পাকিস্তান ৯৭টি ম্যাচ জিতেছে, বাংলাদেশ ৪০টি ম্যাচ জিতেছে এবং ২৫টি ম্যাচ ড্র হয়েছে।

বাংলাদেশ এবং পাকিস্তানের মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য ক্রিকেট ম্যাচগুলির মধ্যে একটি হল ১৯৯৯ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপে বাংলাদেশ এবং পাকিস্তানের মধ্যকার ম্যাচ। সেই ম্যাচে বাংলাদেশ পাকিস্তানকে ৬২ রানে হারিয়েছিল, যা ছিল বাংলাদেশী ক্রিকেটের ইতিহাসে একটি ঐতিহাসিক জয়।পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দল খেলোয়াড়

বাংলাদেশ এবং পাকিস্তানের মধ্যে সর্বশেষ ক্রিকেট ম্যাচটি ২০২৩ সালের এশিয়া কাপে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। সেই ম্যাচে বাংলাদেশ পাকিস্তানকে ৯৪ রানে হারিয়েছিল।

বর্তমানে, বাংলাদেশ এবং পাকিস্তান ক্রিকেট দলের মধ্যে পার্থক্য খুব বেশি নয়। বাংলাদেশ দল গত কয়েক বছরে ব্যাপক উন্নতি করেছে এবং তারা এখন বিশ্বের অন্যতম শক্তিশালী ক্রিকেট দল। পাকিস্তান দলও এখন একটি ভারসাম্যপূর্ণ দল এবং তারা যেকোনো দলের বিরুদ্ধে জয়লাভ করার ক্ষমতা রাখে।

বাংলাদেশ এবং পাকিস্তানের মধ্যে ক্রিকেট ম্যাচগুলি সবসময়ই উত্তেজনাপূর্ণ এবং জমজমাট হয়। দুই দলের মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা ক্রমেই বাড়ছে এবং ভবিষ্যতে এই প্রতিদ্বন্দ্বিতা আরও উত্তেজনাপূর্ণ হবে বলে আশা করা যায়।পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দল খেলোয়াড়

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top