পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর নাম কি

https://jobbd.org/%e0%a6%aa%e0%a6%be%e0%a6%95%e0%a6%bf%e0%a6%b8%e0%a7%8d%e0%a6%a4%e0%a6%be%e0%a6%a8%e0%a7%87%e0%a6%b0-%e0%a6%ac%e0%a6%b0%e0%a7%8d%e0%a6%a4%e0%a6%ae%e0%a6%be%e0%a6%a8-%e0%a6%aa%e0%a7%8d%e0%a6%b0%e0%a6%a7/

পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর নাম কি

পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর নাম হল শেহবাজ শরীফ। তিনি পাকিস্তান মুসলিম লীগ (এন) এর সভাপতি এবং ২০২৩ সালের ১১ই এপ্রিল পাকিস্তানের ২৩তম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ করেন।পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর নাম কি

পাকিস্তানের প্রথম রাজধানীর নাম কি?

পাকিস্তানের প্রথম রাজধানীর নাম হল করাচি। পাকিস্তান ১৯৪৭ সালের ১৪ই আগস্ট স্বাধীনতা লাভ করে। স্বাধীনতার পর পাকিস্তানের প্রথম রাজধানী করাচি নির্বাচিত হয়। করাচি পাকিস্তানের বৃহত্তম শহর এবং অর্থনৈতিক রাজধানী।

পাকিস্তানের স্বাধীনতার পর মুহাম্মদ আলী জিন্নাহ করাচিকে পাকিস্তানের রাজধানী হিসেবে নির্বাচিত করেন। করাচি ছিল পাকিস্তানের স্বাধীনতা আন্দোলনের একটি গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্র। করাচি ছিল পাকিস্তানের পূর্ব অংশের সাথে যোগাযোগের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ বন্দর শহর।পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর নাম কি

পাকিস্তানের স্বাধীনতার পর করাচিতে পাকিস্তানের সরকারী কার্যালয় স্থাপন করা হয়। করাচি পাকিস্তানের প্রথম রাজধানী হিসেবে প্রায় ২০ বছর স্থায়ী ছিল। ১৯৬৭ সালে পাকিস্তানের দ্বিতীয় রাজধানী ইসলামাবাদ স্থাপিত হয়।

পাকিস্তান নামের অর্থ কি?

পাকিস্তান নামের অর্থ হল “নতুন চাঁদ বিশিষ্ট সবুজ পতাকা”। পাকিস্তান নামটি উর্দু ভাষার দুটি শব্দ “পাক” এবং “স্তান” দ্বারা গঠিত। “পাক” শব্দের অর্থ হল “পবিত্র” এবং “স্তান” শব্দের অর্থ হল “ভূমি”। অর্থাৎ, পাকিস্তান নামের অর্থ হল “পবিত্র ভূমি” বা “পবিত্র পতাকা বিশিষ্ট ভূমি”।

পাকিস্তান নামটি মুহাম্মদ আলী জিন্নাহ দ্বারা ১৯৩৩ সালে প্রথম প্রস্তাবিত হয়। জিন্নাহ চেয়েছিলেন যে পাকিস্তানের নামটি ইসলামের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়া উচিত। তিনি “পাকিস্তান” নামটি পছন্দ করেন কারণ এটি ইসলামের পবিত্রতা এবং পাকিস্তানের স্বাধীনতার পতাকা উভয়কেই প্রতিফলিত করে।পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর নাম কি

আরো পড়ুনঃ  হোমিওপ্যাথি ওষুধের নাম ও কাজ pdf

পাকিস্তান নামটি ১৯৪৭ সালের ১৪ই আগস্ট পাকিস্তানের স্বাধীনতার পর সরকারিভাবে গৃহীত হয়।

1952 সালে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী কে ছিলেন?

১৯৫২ সালে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন খাজা নাজিমুদ্দিন। তিনি ১৯৫১ সালের ১৬ই অক্টোবর থেকে ১৯৫৩ সালের ১৬ই অক্টোবর পর্যন্ত পাকিস্তানের দ্বিতীয় প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

খাজা নাজিমুদ্দিন একজন ব্রিটিশ ভারতীয় রাজনীতিবিদ ছিলেন। তিনি ১৯৪৭ সালের ভারত বিভাগের পর পাকিস্তানের প্রথম গভর্নর-জেনারেল হিসেবে নিযুক্ত হন। ১৯৫১ সালে লিয়াকত আলী খানের হত্যাকাণ্ডের পর তিনি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হন।পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর নাম কি

খাজা নাজিমুদ্দিনের প্রধানমন্ত্রীত্বের সময় পাকিস্তানে রাজনৈতিক অস্থিরতা দেখা দেয়। ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন তার প্রধানমন্ত্রীত্বের সময় ঘটে। এই আন্দোলনের ফলে পাকিস্তানের রাষ্ট্রভাষা হিসেবে উর্দুর পাশাপাশি বাংলাকেও স্বীকৃতি দেওয়া হয়।

খাজা নাজিমুদ্দিনের প্রধানমন্ত্রীত্বের সমালোচনা করা হয় যে তিনি গণতন্ত্রের অবক্ষয় ঘটিয়েছিলেন। তিনি ১৯৫৩ সালের অক্টোবর মাসে গভর্নর-জেনারেল ইস্কান্দার মির্জার দ্বারা অপসারিত হন।

পাকিস্তানের জনসংখ্যা কত 2023?

পাকিস্তানের জনসংখ্যা ২৩০.০ মিলিয়ন (২৩ কোটি)। পাকিস্তান বিশ্বের ৬ষ্ঠ জনবহুল দেশ। পাকিস্তানের জনসংখ্যার ঘনত্ব প্রতি বর্গকিলোমিটারে ২৮০ জন।

পাকিস্তানের জনসংখ্যা দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে। ২০২৩ সালের অনুমান অনুযায়ী, পাকিস্তানের জনসংখ্যা ২০৩০ সালে ২৫০ মিলিয়ন এবং ২০৫০ সালে ৩০০ মিলিয়ন ছাড়িয়ে যাবে।পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর নাম কি

পাকিস্তানের জনসংখ্যা বৃদ্ধির প্রধান কারণ হলো উচ্চ জন্মহার। পাকিস্তানের জন্মহার প্রতি ১০০০ জনে ৩৪ জন। এছাড়াও, পাকিস্তানের স্বাস্থ্যসেবার উন্নতির ফলে শিশু মৃত্যুহার কমে যাওয়ায় জনসংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে।

পাকিস্তানের জনসংখ্যা বৃদ্ধির ফলে দেশটির অর্থনীতি, শিক্ষা, স্বাস্থ্যসেবা, পরিবেশ ইত্যাদি ক্ষেত্রে নানা সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে।

পাকিস্তানের মাথাপিছু আয় কত ২০২১ ২০২২?

২০২১-২২ অর্থবছরে পাকিস্তানের মাথাপিছু আয় ছিল ১৬১৩.৮ ডলার। ২০২২-২৩ অর্থবছরে পাকিস্তানের মাথাপিছু আয় কমে ১৩৯৯.১ ডলার হয়েছে।

পাকিস্তানের মাথাপিছু আয় কমে যাওয়ার কারণ হলো ২০২২-২৩ অর্থবছরে দেশটির অর্থনীতিতে মন্দা দেখা দিয়েছে। এই মন্দার ফলে পাকিস্তানের জিডিপি বৃদ্ধির হার কমে ০.২৯ শতাংশে দাঁড়িয়েছে।পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর নাম কি

আরো পড়ুনঃ  প্রিয় মানুষের জন্মদিনের শুভেচ্ছা স্ট্যাটাস

পাকিস্তানের মাথাপিছু আয় বৃদ্ধির জন্য দেশটির অর্থনীতিতে স্থিতিশীলতা আনা এবং বিনিয়োগ বৃদ্ধি করা প্রয়োজন।

পাকিস্তানের জন্ম হয় কত সালে?

পাকিস্তানের জন্ম হয় ১৯৪৭ সালে। ১৯৪৭ সালের ১৪ই আগস্ট ভারতীয় উপমহাদেশ ব্রিটিশদের কাছ থেকে স্বাধীনতা লাভ করে। স্বাধীনতার পর ভারত ও পাকিস্তান এই উপমহাদেশ বিভাজনের মাধ্যমে দুটি দেশের জন্ম হয়। পাকিস্তান রাষ্ট্রটি মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ বেলুচিস্তান, খাইবার পাখতুনখোয়া, সিন্ধু, পশ্চিম পাঞ্জাব ও পূর্ব বাংলা, এই রাজ্যগুলো নিয়ে গঠিত হয়।পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর নাম কি

পাকিস্তানের জন্মের ফলে ভারতীয় উপমহাদেশের মুসলমানদের জন্য একটি স্বতন্ত্র রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠিত হয়। পাকিস্তানের জন্মের পর থেকে দেশটি বিভিন্ন রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়েছে। তবে, পাকিস্তান একটি স্থিতিশীল ও সমৃদ্ধ রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে ওঠে।

পশ্চিম পাকিস্তান কবে বাংলাদেশে পরিণত হয়

পশ্চিম পাকিস্তান ১৯৭১ সালের ১৬ই ডিসেম্বর বাংলাদেশে পরিণত হয়। ১৯৭১ সালের মার্চ মাসে পূর্ব পাকিস্তান স্বাধীনতা ঘোষণা করে এবং পশ্চিম পাকিস্তানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরু করে। নয় মাস ব্যাপী সংঘটিত এই যুদ্ধে পূর্ব পাকিস্তান বিজয় অর্জন করে এবং গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে।

১৯৭১ সালের ১৬ই ডিসেম্বর ভারতীয় মিত্রবাহিনীর প্রধান জেনারেল জগজিৎ সিং অরোরার কাছে পাকিস্তানের সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল নিয়াজী আত্মসমর্পণ করেন। এই আত্মসমর্পণের মধ্য দিয়ে পূর্ব পাকিস্তানের স্বাধীনতা যুদ্ধের সমাপ্তি ঘটে এবং বাংলাদেশ একটি স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে আবির্ভূত হয়।পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর নাম কি

বাংলাদেশের জন্মের ফলে পাকিস্তান দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে যায়। পশ্চিম পাকিস্তান পাকিস্তান হিসেবে বহাল থাকে।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর তালিকা

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর তালিকা:

নাম দল মেয়াদ
লিয়াকত আলী খান মুসলিম লীগ (কনভেনশন) ১৯৪৭-১৯৫১
খাজা নাজিমুদ্দিন মুসলিম লীগ (কনভেনশন) ১৯৫১-১৯৫৩
চৌধুরী মোহাম্মদ আলী মুসলিম লীগ (কনভেনশন) ১৯৫৫-১৯৫৬
হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী আওয়ামী লীগ ১৯৫৬-১৯৫৭
ইসমাইল ইসমাইল চুন্দ্রিগার মুসলিম লীগ (কনভেনশন) ১৯৫৭-১৯৫৮
ফিরোজ খান নুন পাকিস্তান ডেমোক্রেটিক মুসলিম লীগ ১৯৫৮-১৯৫৮
আবুল হাসান মাহবুব-উল-হক মুসলিম লীগ (কনভেনশন) ১৯৬৩-১৯৬৬
আহমেদ শাহ বুগরা মুসলিম লীগ (কনভেনশন) ১৯৬৬-১৯৬৯
জুলফিকার আলী ভুট্টো পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি) ১৯৭১-১৯৭৭
মোহাম্মদ জিয়াউল হক সামরিক শাসন ১৯৭৭-১৯৮৮
মোহাম্মদ খায়েরুল হাসান সামরিক শাসন ১৯৮৮-১৯৮৮
বেগম খালেদা জিয়া পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি) ১৯৮৮-১৯৯০
নওয়াজ শরীফ পাকিস্তান মুসলিম লীগ (নওয়াজ) (পিএমএল-এন) ১৯৯০-১৯৯৩
ফারুক আহমেদ সামরিক শাসন ১৯৯৩
মোহাম্মদ খায়েরুল হাসান সামরিক শাসন ১৯৯৩-১৯৯৩
বেগম খালেদা জিয়া পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি) ১৯৯৩-১৯৯৬
নওয়াজ শরীফ পাকিস্তান মুসলিম লীগ (নওয়াজ) (পিএমএল-এন) ১৯৯৭-১৯৯৯
পারভেজ মোশাররফ সামরিক শাসন ১৯৯৯-২০০২
শওকত আজিজ মুসলিম লীগ (কনভেনশন) ২০০২-২০০৪
চৌধুরী শওকত হায়দার মুসলিম লীগ (কনভেনশন) ২০০৪-২০০৭
ইউসুফ রাজা গিলানি পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি) ২০০৮-২০১৩
রাজা পারভেজ আশরাফ পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি) ২০১৩-২০১৭
শাহবাজ শরীফ পাকিস্তান মুসলিম লীগ (নওয়াজ) (পিএমএল-এন) ২০১৮-বর্তমান
আরো পড়ুনঃ  বাংলাদেশ বনাম ইংল্যান্ড সিরিজ ২০২৩ সময়সূচী

পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতির তালিকা

পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতির তালিকা:

নাম মেয়াদ
ইস্কান্দার মির্জা ১৯৪৭-১৯৫৬
আইয়ুব খান ১৯৫৬-১৯৬৯
আগা মোহাম্মদ ইয়াহিয়া খান ১৯৬৯-১৯৭১
জুলফিকার আলী ভুট্টো ১৯৭১-১৯৭৩
ফখরুদ্দিন আলী আয়ুব ১৯৭৩-১৯৭৮
মোহাম্মদ জিয়াউল হক ১৯৭৮-১৯৮৮
গোলাম ইসহাক خان ১৯৮৮-১৯৯৩
ফারুক আহমেদ ১৯৯৩
সাবির শরীফ ১৯৯৩-১৯৯৭
পারভেজ মোশাররফ ১৯৯৭-২০০১
মুশাররফ রুহুল কাদের ২০০১-২০০২
মুহাম্মদ মুশাররফ ২০০২-২০০৮
আসিফ আলী জারদারি ২০০৮-২০১৩
মামনুন হুসেন ২০১৩-২০১৮
আরিফ আলভী ২০১৮-বর্তমান

পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতি পদটি একটি সাংবিধানিক পদ। রাষ্ট্রপতি পাকিস্তানের রাষ্ট্রপ্রধান এবং সামরিক বাহিনীর সর্বাধিনায়ক। তিনি পাকিস্তানের পার্লামেন্ট দ্বারা নির্বাচিত হন।পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর নাম কি

পাকিস্তানের গভর্নর জেনারেল তালিকা

পাকিস্তানের গভর্নর জেনারেল তালিকা:

নাম মেয়াদ
লর্ড মাউন্টব্যাটেন ১৯৪৭-১৯৪৮
স্যার গোলাম মুহাম্মদ ১৯৪৮-১৯৫১
স্যার খাজা নাজিমুদ্দিন ১৯৫১-১৯৫৩
স্যার গোলাম মুহাম্মদ ১৯৫৩-১৯৫৫
স্যার ইসমাইল ইস্কান্দার ১৯৫৫-১৯৫৬
আইয়ুব খান ১৯৫৬-১৯৫৮

পাকিস্তানের গভর্নর জেনারেল পদটি ছিল পাকিস্তান স্বাধীনতার পর থেকে ১৯৫৮ সাল পর্যন্ত। এই পদটি পাকিস্তানের রাষ্ট্রপ্রধানের পদ ছিল। গভর্নর জেনারেল পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীকে নিয়োগ করতেন এবং পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর সর্বাধিনায়ক ছিলেন।পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর নাম কি

১৯৫৮ সালে আইয়ুব খান পাকিস্তানে সামরিক শাসন জারি করেন এবং গভর্নর জেনারেল পদটি বিলুপ্ত করেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top