নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দল বনাম আর্জেন্টিনা এর লাইন-আপ

https://jobbd.org/%e0%a6%a8%e0%a7%87%e0%a6%a6%e0%a6%be%e0%a6%b0%e0%a6%b2%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a6%be%e0%a6%a8%e0%a7%8d%e0%a6%a1%e0%a6%b8-%e0%a6%9c%e0%a6%be%e0%a6%a4%e0%a7%80%e0%a6%af%e0%a6%bc-%e0%a6%ab%e0%a7%81%e0%a6%9f/

নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দল বনাম আর্জেন্টিনা এর লাইন-আপ

নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দল

  • গোলরক্ষক: আন্দ্রিস নোপার্ট

  • রক্ষণভাগ: জুরিয়েন টিম্বার, ভার্জিল ভ্যান ডাইক, নাথান আকে, ডিলে ব্লিন্ড

  • মধ্যমাঠ: ফ্রাঙ্কি ডি ইয়ং, মার্টেন ডি রুন, ডেনজেল ডামফ্রিস

  • আক্রমণভাগ: ডেভি ক্লাসেন, কডি গাকপো, মেমফিস ডিপাই

আর্জেন্টিনা জাতীয় ফুটবল দল

গোলরক্ষক: এমিলিয়ানো মার্তিনেজ

রক্ষণভাগ: নাহুয়েল মলিনা, মার্কোস আকুনা, নিকোলাস ওতামেন্দি, ক্রিস্তিয়ান রোমেরো

মধ্যমাঠ: লিওনার্দো পারেদেস, অ্যালেক্সিস ম্যাক অ্যালিস্টার, এঞ্জো ফার্নান্দেজ

আক্রমণভাগ: লিওনেল মেসি, হুলিয়ান আলভারেজ, আনহেল দি মারিয়া

নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দল বনাম আর্জেন্টিনা এর লাইভ স্ট্রিমিং কোথায় দেখতে পাওয়া যাবে?

নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দল বনাম আর্জেন্টিনা এর লাইভ স্ট্রিমিং বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন মাধ্যমে দেখা যাবে।

বাংলাদেশে, এই ম্যাচটি লাইভ স্ট্রিমিং দেখা যাবে জিও সিনেমা অ্যাপ্লিকেশনে। এছাড়াও, এই ম্যাচটি টিভিতে দেখা যাবে স্পোর্টস ১৮ এবং স্পোর্টস ১৮ এইচডি চ্যানেলে।

ভারতে, এই ম্যাচটি লাইভ স্ট্রিমিং দেখা যাবে স্টার স্পোর্টস নেটওয়ার্কে। এছাড়াও, এই ম্যাচটি টিভিতে দেখা যাবে স্টার স্পোর্টস ১, স্টার স্পোর্টস ২, স্টার স্পোর্টস ৩ এবং স্টার স্পোর্টস এইচডি চ্যানেলে।

বিশ্বের অন্যান্য দেশে, এই ম্যাচটি লাইভ স্ট্রিমিং দেখা যাবে ফিফার অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে। এছাড়াও, বিভিন্ন দেশের টেলিভিশন চ্যানেল এবং অনলাইন স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম এই ম্যাচটি লাইভ সম্প্রচার করবে।

নির্দিষ্ট দেশ বা অঞ্চলের জন্য লাইভ স্ট্রিমিং কোথায় পাওয়া যাবে তা জানতে, আপনি ফিফার অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে চেক করতে পারেন।

নিচে কিছু নির্দিষ্ট লাইভ স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্মের একটি তালিকা দেওয়া হল:

  • বাংলাদেশে: জিও সিনেমা
  • ভারতে: স্টার স্পোর্টস নেটওয়ার্ক
  • বিশ্বের অন্যান্য দেশে: ফিফার অফিসিয়াল ওয়েবসাইট

এছাড়াও, আপনি বিভিন্ন ফুটবল ফ্যান সাইট এবং ফ্যান গ্রুপের মাধ্যমেও এই ম্যাচের লাইভ স্ট্রিমিং খুঁজে পেতে পারেন।নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দল বনাম আর্জেন্টিনা এর লাইন-আপ

আরো পড়ুনঃ  শিলং নাইট তীর রেজাল্ট

নেদারল্যান্ডস কত নাম্বার দল?

২০২৩ সালের ২২শে ডিসেম্বর পর্যন্ত, ফিফা র‍্যাঙ্কিং অনুসারে নেদারল্যান্ডস ৭ম স্থানে রয়েছে। নেদারল্যান্ডস ২০১০ বিশ্বকাপের ফাইনালে পৌঁছেছিল, কিন্তু স্পেনের কাছে হেরে যায়। নেদারল্যান্ডস ১৯৮৮ সালে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ জিতেছিল।

নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দলটিকে “ওরাঞ্জ কেনিগজ” (অরেঞ্জ রাজারা) নামেও ডাকা হয়।

নেদারল্যান্ডস ফুটবল কতটা শক্তিশালী

নেদারল্যান্ডস ফুটবলকে বিশ্বের অন্যতম শক্তিশালী ফুটবল হিসেবে বিবেচনা করা হয়। নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দলটি তার আক্রমণাত্মক খেলার ধরন এবং দক্ষ খেলোয়াড়দের জন্য পরিচিত। নেদারল্যান্ডস তিনটি বিশ্বকাপ ফাইনালে পৌঁছেছে, যার মধ্যে ১৯৮৮ সালে একটি ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়নশিপ জিতেছিল।নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দল বনাম আর্জেন্টিনা এর লাইন-আপ

বর্তমানে, নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দলটিতে অনেক প্রতিভাবান খেলোয়াড় রয়েছে। তাদের মধ্যে রয়েছেন:

  • ভার্জিল ভ্যান ডাইক (রক্ষণভাগ)
  • ফ্রাঙ্কি ডি ইয়ং (মধ্যমাঠ)
  • মেমফিস ডিপাই (আক্রমণভাগ)

এই খেলোয়াড়রা নেদারল্যান্ডসকে বিশ্বের শীর্ষ দলের মধ্যে একটি হিসেবে রাখতে সাহায্য করছে।

নেদারল্যান্ডসের ফুটবলের শক্তির কিছু কারণ হল:

  • দক্ষ খেলোয়াড়: নেদারল্যান্ডসে ফুটবল অত্যন্ত জনপ্রিয় খেলা। এ কারণে, এখানে অনেক প্রতিভাবান খেলোয়াড় তৈরি হয়।
  • উন্নত প্রশিক্ষণ ব্যবস্থা: নেদারল্যান্ডসে ফুটবলের জন্য একটি উন্নত প্রশিক্ষণ ব্যবস্থা রয়েছে। এটি খেলোয়াড়দের তাদের দক্ষতা উন্নত করতে সাহায্য করে।
  • উন্নত ফুটবল সংস্কৃতি: নেদারল্যান্ডসে ফুটবল একটি গর্বের বিষয়। এটি খেলোয়াড়দের তাদের সেরাটা দিতে অনুপ্রাণিত করে।

নেদারল্যান্ডস ফুটবলের ভবিষ্যত উজ্জ্বল বলে মনে করা হয়। এই দলের কাছে অনেক প্রতিভাবান খেলোয়াড় রয়েছে যারা তাদেরকে বিশ্বের শীর্ষ দলের মধ্যে রাখতে সাহায্য করতে পারে।নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দল বনাম আর্জেন্টিনা এর লাইন-আপ

নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দল খেলোয়াড়

অবশ্যই, নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দলের কিছু খেলোয়াড়ের একটি তালিকা এখানে দেওয়া হল:

  • ভার্জিল ভ্যান ডাইক (রক্ষণভাগ) – প্রিমিয়ার লিগের লিভারপুল ক্লাবের একজন ডিফেন্ডার। তিনি বিশ্বের অন্যতম সেরা রক্ষণভাগের খেলোয়াড় হিসেবে বিবেচিত।

  • ফ্রাঙ্কি ডি ইয়ং (মধ্যমাঠ) – লা লিগার বার্সেলোনা ক্লাবের একজন মিডফিল্ডার। তিনি একজন দক্ষ পাসদাতা এবং স্ট্রাইকারদের জন্য সুযোগ তৈরি করতে পারদর্শী।

  • মেমফিস ডিপাই (আক্রমণভাগ) – ফরাসি লিগের লিওঁ ক্লাবের একজন ফরোয়ার্ড। তিনি একজন শক্তিশালী এবং গতিশীল খেলোয়াড় যিনি গোল করতে পারদর্শী।

আরো পড়ুনঃ  মাথাপিছু আয় বৃদ্ধির উপায়

এই খেলোয়াড়রা নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। তারা দলকে বিশ্বের শীর্ষ দলের মধ্যে একটি হিসেবে রাখতে সাহায্য করছে নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দল বনাম আর্জেন্টিনা এর লাইন-আপ

নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দল বনাম আর্জেন্টিনা জাতীয় ফুটবল দল ম্যাচ

নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দল বনাম আর্জেন্টিনা জাতীয় ফুটবল দল ম্যাচ

ফলাফল: নেদারল্যান্ডস 2-2 আর্জেন্টিনা (পেনাল্টিতে ৪-২ জয়)

তারিখ: ৯ ডিসেম্বর, ২০২২

স্থান: লুসাইল স্টেডিয়াম, লুসাইল, কাতার

সময়: ১৯:০০ (ইউটিসি+৩)

নেদারল্যান্ডস

  • গোলদাতা: স্টেভেন বার্গুইন (২৮’), ড্যানজেল ডামফ্রেস (৮৩’)
  • দল: মার্টেন স্টেকেলেনবার্গ; ড্যানজেল ডামফ্রেস, ম্যাথিয়স ডি লিখট, জোয়াকিম মালেলা, ডেভিড টেলর; ফ্রেড, ইয়ুরিয়েন টাইমস; স্টেভেন বার্গুইন, মেসন মাউন্ট, অ্যান্টনি; লুকাকু

আর্জেন্টিনা

  • গোলদাতা: লাওতারো মার্টিনেজ (২২’, ৮৪’)
  • দল: এমিলিয়ানো মার্টিনেজ; নিকোলাস ওতামেন্দি, মার্কোস আকুনা, ক্রিস্তিয়ান রোমেরো, লুকাস মার্টিনেজ; রদ্রিগো ডি পল, জিওভানি লো সেলসো; আনহেল ডি মারিয়া, লাওতারো মার্টিনেজ, লিওনেল মেসি; অ্যালেক্সিস ম্যাক অ্যালেনিস্টার

ম্যাচটি ছিল একটি উত্তেজনাপূর্ণ এবং উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচ, যাতে উভয় দলই তাদের আক্রমণাত্মক খেলার শৈলী প্রদর্শন করে। ম্যাচের শুরু থেকেই উভয় দলই আক্রমণে বেশ সক্রিয় ছিল।নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দল বনাম আর্জেন্টিনা এর লাইন-আপ

২২ মিনিটে, আর্জেন্টিনা প্রথম গোলটি করে। লিওনেল মেসির পাস থেকে লাওতারো মার্টিনেজ বল জালে জড়িয়ে দেন। আর্জেন্টিনা এগিয়ে যায় ১-০।

২৮ মিনিটে, নেদারল্যান্ডস সমতায় ফেরে। স্টেভেন বার্গুইন বল জালে জড়িয়ে দেন। ম্যাচের সমতা ১-১।

প্রথমার্ধের শেষের দিকে, আর্জেন্টিনা বেশ কিছু সুযোগ তৈরি করে, কিন্তু গোল করতে পারেনি।

দ্বিতীয়ার্ধে, উভয় দলই আক্রমণে সক্রিয় ছিল, কিন্তু গোল করতে পারেনি।

৮৩ মিনিটে, নেদারল্যান্ডস ম্যাচে এগিয়ে যায়। ড্যানজেল ডামফ্রেস বল জালে জড়িয়ে দেন। ম্যাচের ফল ২-১।

৮৪ মিনিটে, আর্জেন্টিনা সমতায় ফেরে। লাওতারো মার্টিনেজ পেনাল্টি থেকে বল জালে জড়িয়ে দেন। ম্যাচের সমতা ২-২।

ম্যাচের অতিরিক্ত সময়েও উভয় দলই গোল করতে পারেনি।

পেনাল্টি শুটআউটে, আর্জেন্টিনা ৪-২ ব্যবধানে জয়লাভ করে।

এই জয়ে আর্জেন্টিনা কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে যায়।নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দল বনাম আর্জেন্টিনা এর লাইন-আপ

আর্জেন্টিনা বনাম নেদারল্যান্ড খেলা কবে

২০২৩ সালের ১০ই ডিসেম্বর, শুক্রবার রাতে আর্জেন্টিনা বনাম নেদারল্যান্ডস খেলা অনুষ্ঠিত হবে। ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশি সময় রাত ১২টায়। ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে কাতারের লুসাইল স্টেডিয়ামে।

আরো পড়ুনঃ  মানুষের বৈজ্ঞানিক নাম কি বাংলা

এই ম্যাচটি ২০২২ ফিফা বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচ। এই ম্যাচের জয়ী দল সেমিফাইনালে উঠবে।নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দল বনাম আর্জেন্টিনা এর লাইন-আপ

নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দল বনাম আর্জেন্টিনা – এর পরিসংখ্যান

আন্তর্জাতিক ফুটবলে, এখন পর্যন্ত বার মুখোমুখি হয়েছে এই দুই দল। এর মধ্যে নেদারল্যান্ডসের জয়ের বিপরীতে আর্জেন্টিনার জয় এবং ম্যাচের ফলাফল ড্র হয়েছে।

বিশ্বকাপে, এই দুই দলের বারের দেখায় টি করে জয় পেয়েছে নেদারল্যান্ডস ও আর্জেন্টিনা এবং ম্যাচে ড্র হয়েছে।

দুই দলের শেষ দেখা ২০১৪ সালের বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে। সেই ম্যাচে পেনাল্টি শুটআউটে আর্জেন্টিনাকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছিল নেদারল্যান্ডস।

২০২২ ফিফা বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে, এই দুই দলের ম্যাচটি অত্যন্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে বলে মনে করা হচ্ছে। উভয় দলই দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছে এবং তারা বিশ্বকাপের শিরোপা জিততে চায়।

নেদারল্যান্ডসের পক্ষে, লিওনার্দো জোর্ডানো, মেমফিস ডিপাই এবং ড্যানিয়েল ব্ল্যান্ডার মতো খেলোয়াড়রা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারেন।

আর্জেন্টিনার পক্ষে, লিওনেল মেসি, লাউতারো মার্টিনেজ এবং রদ্রিগো ডি পল মতো খেলোয়াড়রা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারেন।নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দল বনাম আর্জেন্টিনা এর লাইন-আপ

আর্জেন্টিনা বনাম নেদারল্যান্ডস ইতিহাস

আর্জেন্টিনা এবং নেদারল্যান্ডসের মধ্যে খেলাগুলি ঐতিহাসিকভাবে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ। এই দুই দল আন্তর্জাতিক ফুটবলে মোট নয়বার মুখোমুখি হয়েছে, যার মধ্যে নেদারল্যান্ডস চারবার জয়ী হয়েছে, আর্জেন্টিনা তিনবার জয়ী হয়েছে এবং দুটি ম্যাচ ড্র হয়েছে।নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দল বনাম আর্জেন্টিনা এর লাইন-আপ

১৯৭৮ সালের বিশ্বকাপের ফাইনালে আবার মুখোমুখি হয়েছিল এই দুই দল। সে ম্যাচে আর্জেন্টিনা ৩-১ গোলে জয়ী হয়ে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের শিরোপা জয় করে। এই ম্যাচে আর্জেন্টিনার হয়ে দুটি করে গোল করেন মারিও কেম্পেস এবং ড্যানিয়েল বার্তোনি।নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দল বনাম আর্জেন্টিনা এর লাইন-আপ

২০১৪ সালের বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে আবার মুখোমুখি হয়েছিল এই দুই দল। সে ম্যাচেও জয়ী হয় নেদারল্যান্ডস, তবে পেনাল্টি শুটআউটে। নিয়মিত সময়ে খেলা ২-২ গোলে সমতায় ছিল।

২০২২ সালের বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে আবার মুখোমুখি হতে যাচ্ছে এই দুই দল। এই ম্যাচটি অত্যন্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে বলে মনে করা হচ্ছে। উভয় দলই দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছে এবং তারা বিশ্বকাপের শিরোপা জিততে চায়।নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দল বনাম আর্জেন্টিনা এর লাইন-আপ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top