তাকরিম নামের অর্থ কি

https://jobbd.org/%e0%a6%a4%e0%a6%be%e0%a6%95%e0%a6%b0%e0%a6%bf%e0%a6%ae-%e0%a6%a8%e0%a6%be%e0%a6%ae%e0%a7%87%e0%a6%b0-%e0%a6%85%e0%a6%b0%e0%a7%8d%e0%a6%a5-%e0%a6%95%e0%a6%bf/

তাকরিম নামের অর্থ কি

তাকরিম নামের বাংলা অর্থ সম্মান, মর্যাদা, গৌরব। এই নামটি ছেলেদের জন্য রাখা হয়। তাকরিম নামের আরবি অর্থ হল عزة, كرامة, شرف

তাকরিম নামটি একটি সুন্দর এবং অর্থবহ নাম। এই নামের অধিকারী ব্যক্তিরা সাধারণত সম্মানিত, মর্যাদাবান এবং গৌরবময় হয়ে থাকেন।তাকরিম নামের অর্থ কি

সালেহ আহমদ তাকরিম নামের অর্থ কি

সালেহ আহমদ তাকরিম নামের অর্থ হল সৎ, ভালো, মর্যাদাবান, সম্মানিত, গৌরবময়

সালেহ নামের অর্থ হল সৎ, ভালো, ধার্মিক, নিষ্ঠাবান, ন্যায়পরায়ণ। আহমদ নামের অর্থ হল প্রশংসিত, প্রশংসাযোগ্য, আল্লাহর প্রশংসাকারী। তাকরিম নামের অর্থ হল সম্মান, মর্যাদা, গৌরব

সালেহ আহমদ তাকরিম নামটি একটি সুন্দর এবং অর্থবহ নাম। এই নামের অধিকারী ব্যক্তিরা সাধারণত সৎ, ভালো, ধার্মিক, নিষ্ঠাবান, ন্যায়পরায়ণ, সম্মানিত, মর্যাদাবান এবং গৌরবময় হয়ে থাকেন।

সালেহ আহমদ তাকরিম নামটি ছেলেদের জন্য রাখা হয়।তাকরিম নামের অর্থ কি

তাকরীম শব্দের আরবি অর্থ কি

তাকরীম শব্দের আরবি অর্থ হল সম্মান, মর্যাদা, গৌরব। এই শব্দটি كرم (করামা) মূল শব্দ থেকে এসেছে, যার অর্থ হল সম্মান করা, মর্যাদা দেওয়া, গৌরব করা

তাকরীম শব্দটি বিভিন্ন ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হতে পারে। যেমন:

  • মানুষের প্রতি সম্মান প্রদর্শন
  • গুরুজনদের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন
  • ধর্মীয় ব্যক্তিত্বদের প্রতি ভক্তি প্রদর্শন
  • অতিথিদের প্রতি আপ্যায়ন
  • দেশের প্রতি আনুগত্য
  • আল্লাহর প্রতি ভক্তি

তাকরীম শব্দটি একটি সুন্দর এবং অর্থবহ শব্দ। এই শব্দটি আমাদেরকে সম্মান, মর্যাদা এবং গৌরব প্রদানের গুরুত্ব সম্পর্কে শিক্ষা দেয়।তাকরিম নামের অর্থ কি

আরো পড়ুনঃ  বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে কিছু সাধারণ জ্ঞান ২০২২

তাকরীম কে

বাংলাদেশের একজন কুরআনের হাফেজ তাকরীম। তিনি ২০২২ সালে মাত্র ১৩ বছর বয়সে ইরানের তেহরানে অনুষ্ঠিত ইরান আন্তর্জাতিক হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতায় ৩৮তম আসরে প্রথম স্থান অর্জন করেন।

তাকরিম ২০২৩ সালে দুবাই অনুষ্ঠিত ২৬তম আসরে আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতার প্রথম স্থান অর্জন করেন। তিনি মাত্র সাড়ে ৯ বছর বয়সে সম্পূর্ণ কুরআন মুখস্থ করেন। বর্তমানে তিনি মিরপুরের মারকাযু ফয়জিল কুরআন আল ইসলামী ঢাকা মাদ্রাসায় পড়াশোনা করছেন।তাকরিম নামের অর্থ কি

তাকরীমের এই সাফল্য বাংলাদেশের জন্য এক গৌরবময় ঘটনা। তিনি বিশ্বের কাছে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছেন।তাকরিম নামের অর্থ কি

সালেহ আহমদ তাকরিম এর বাড়ি কোথায়?

সালেহ আহমদ তাকরিমের বাড়ি টাঙ্গাইল জেলার নাগরপুর উপজেলার ভাদ্রা গ্রামে। তিনি ২০০৮ সালের ৩১ ডিসেম্বর সিরাজগঞ্জ জেলার চৌহালী উপজেলার শৈলজনা ইউনিয়নের উমরপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। পরবর্তীকালে যমুনার করালগ্রাসে নদী ভাঙ্গানে ভিটামাটি তলিয়ে যাবার পর স্থানান্তরিত হয়ে টাঙ্গাইল জেলার নাগরপুর থানার ভাদ্রা গ্রামে নতুন ঠিকানায় স্থায়ীভাবে বসবাস করছেন।তাকরিম নামের অর্থ কি

তাকরিমের বাবা হাফেজ সৈয়দ আব্দুর রহমান পেশায় একজন মাদ্রাসার শিক্ষক। তিনি সাভারের একটি সুনামধন্য মাদ্রাসায় শিক্ষকতা করছেন। তাকরিমের মাতা একজন গৃহিণী।

আব্দুল্লাহ আল তাকরিম নামের অর্থ

আব্দুল্লাহ আল তাকরিম নামের অর্থ হল আল্লাহর দাস, সম্মানিত, মর্যাদাবান, গৌরবময়

আব্দুল্লাহ নামের অর্থ হল আল্লাহর দাস। এই নামটি ছেলেদের জন্য রাখা হয়। আব্দুল্লাহ নামটি ইসলামের নবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) এর নামের সাথে মিলে যায়।

আল তাকরিম নামের অর্থ হল সম্মান, মর্যাদা, গৌরব। এই নামটি ছেলেদের জন্য রাখা হয়।

আব্দুল্লাহ আল তাকরিম নামটি একটি সুন্দর এবং অর্থবহ নাম। এই নামের অধিকারী ব্যক্তিরা সাধারণত আল্লাহর দাস, সম্মানিত, মর্যাদাবান এবং গৌরবময় হয়ে থাকেন।

আব্দুল্লাহ আল তাকরিম নামটি ছেলেদের জন্য একটি আদর্শ নাম।তাকরিম নামের অর্থ কি

আরো পড়ুনঃ  ভারতের প্রধানমন্ত্রীর পুরো নাম কি

তাকরিম নামের আরবি অর্থ কি

তাকরিম নামের আরবি অর্থ হল সম্মান, মর্যাদা, গৌরব। এই নামটি ছেলেদের জন্য রাখা হয়।

তাকরিম নামের আরবি বানান হল تكريم। এই নামটি كرم (করামা) মূল শব্দ থেকে এসেছে, যার অর্থ হল সম্মান করা, মর্যাদা দেওয়া, গৌরব করা

তাকরিম নামটি একটি সুন্দর এবং অর্থবহ নাম। এই নামের অধিকারী ব্যক্তিরা সাধারণত সম্মানিত, মর্যাদাবান এবং গৌরবময় হয়ে থাকেন।তাকরিম নামের অর্থ কি

তাকরিমা নামের অর্থ কি

তাকরিমা নামের অর্থ হল সম্মান, মর্যাদা, গৌরব। এই নামটি মেয়েদের জন্য রাখা হয়।

তাকরিমা নামের আরবি বানান হল تكريم। এই নামটি كرم (করামা) মূল শব্দ থেকে এসেছে, যার অর্থ হল সম্মান করা, মর্যাদা দেওয়া, গৌরব করা

তাকরিমা নামটি একটি সুন্দর এবং অর্থবহ নাম। এই নামের অধিকারী ব্যক্তিরা সাধারণত সম্মানিত, মর্যাদাবান এবং গৌরবময় হয়ে থাকেন।

তাকরিমা নামটি একটি ইসলামিক নাম। এই নামটি কুরআন ও হাদিসেও উল্লেখিত হয়েছে। কুরআনে সূরা নিসার ৮৯ নম্বর আয়াতে আল্লাহ তায়ালা বলেছেন, “তাদের মধ্যে এমন কেউ রয়েছে যে আল্লাহর রাস্তায় নিজেকে বিক্রি করে দেয়। আল্লাহ তার প্রতি দয়াশীল। আল্লাহ্ সৎকর্মশীলদের প্রতি দয়াশীল।”

হাদিসে হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) বলেছেন, “যে ব্যক্তি কোন মুসলমানের সম্মান রক্ষা করল, সে যেন আমাকে সম্মান করল।”

তাকরিমা নামটি একটি জনপ্রিয় নাম। বাংলাদেশে অনেক মেয়েরা এই নামটি ব্যবহার করে থাকেন।তাকরিম নামের অর্থ কি

সালেহ নামের অর্থ কি

সালেহ নামের অর্থ হল সৎ, ধার্মিক, নীতিবান, নৈতিক, সঠিক, ভাল, উত্তম। এই নামটি ছেলেদের জন্য রাখা হয়।

সালেহ নামটি একটি আরবি শব্দ। এই নামটি صالح (সালেহ) মূল শব্দ থেকে এসেছে, যার অর্থ হল সৎ, ধার্মিক, নীতিবান, নৈতিক, সঠিক, ভাল, উত্তম

সালেহ নামটি একটি সুন্দর এবং অর্থবহ নাম। এই নামের অধিকারী ব্যক্তিরা সাধারণত সৎ, ধার্মিক, নীতিবান, নৈতিক, সঠিক, ভালো এবং উত্তম হয়ে থাকেন।

আরো পড়ুনঃ  ২০২৩ সালে আর্জেন্টিনার ম্যাচ

সালেহ নামটি একটি ইসলামিক নাম। এই নামটি কুরআন ও হাদিসেও উল্লেখিত হয়েছে। কুরআনে সূরা মুমিনুনের ১১৪ নম্বর আয়াতে আল্লাহ তায়ালা বলেছেন, “যারা বিশ্বাস করে এবং সৎকর্ম করে, তাদের জন্য রয়েছে জান্নাতের সুখী জীবন।”

হাদিসে হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) বলেছেন, “সৎকর্মশীলদের জন্য জান্নাতের সুখী জীবন।”

সালেহ নামটি একটি জনপ্রিয় নাম। বাংলাদেশে অনেক ছেলেরা এই নামটি ব্যবহার করে থাকেন।তাকরিম নামের অর্থ কি

তাজবীর নামের অর্থ কি

তাজবীর নামের অর্থ হল সম্মান করা, মর্যাদা দেওয়া, গৌরব করা। এই নামটি ছেলেদের জন্য রাখা হয়।

তাজবীর নামটি একটি আরবি শব্দ। এই নামটি تكريم (তাকরিম) মূল শব্দ থেকে এসেছে, যার অর্থ হল সম্মান করা, মর্যাদা দেওয়া, গৌরব করা

তাজবীর নামটি একটি সুন্দর এবং অর্থবহ নাম। এই নামের অধিকারী ব্যক্তিরা সাধারণত সম্মানিত, মর্যাদাবান এবং গৌরবময় হয়ে থাকেন।

তাজবীর নামটি একটি ইসলামিক নাম। এই নামটি কুরআন ও হাদিসেও উল্লেখিত হয়েছে। কুরআনে সূরা নিসার ৮৯ নম্বর আয়াতে আল্লাহ তায়ালা বলেছেন, “তাদের মধ্যে এমন কেউ রয়েছে যে আল্লাহর রাস্তায় নিজেকে বিক্রি করে দেয়। আল্লাহ তার প্রতি দয়াশীল। আল্লাহ্ সৎকর্মশীলদের প্রতি দয়াশীল।”

হাদিসে হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) বলেছেন, “যে ব্যক্তি কোন মুসলমানের সম্মান রক্ষা করল, সে যেন আমাকে সম্মান করল।”

তাজবীর নামটি একটি জনপ্রিয় নাম। বাংলাদেশে অনেক ছেলেরা এই নামটি ব্যবহার করে থাকেন।

উদাহরণস্বরূপ, বাংলাদেশের একজন কুরআনের হাফেজ তাজবীর। তিনি ২০২২ সালে মাত্র ১৩ বছর বয়সে ইরানের তেহরানে অনুষ্ঠিত ইরান আন্তর্জাতিক হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতায় ৩৮তম আসরে প্রথম স্থান অর্জন করেন।

তাজবীর ২০২৩ সালে দুবাই অনুষ্ঠিত ২৬তম আসরে আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতার প্রথম স্থান অর্জন করেন। তিনি মাত্র সাড়ে ৯ বছর বয়সে সম্পূর্ণ কুরআন মুখস্থ করেন। বর্তমানে তিনি মিরপুরের মারকাযু ফয়জিল কুরআন আল ইসলামী ঢাকা মাদ্রাসায় পড়াশোনা করছেন।

তাজবীরের এই সাফল্য বাংলাদেশের জন্য এক গৌরবময় ঘটনা। তিনি বিশ্বের কাছে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছেন।তাকরিম নামের অর্থ কি

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top