আমেরিকার মুদ্রার নাম কি

আমেরিকার মুদ্রার নাম মার্কিন ডলার। এর সাংকেতিক চিহ্ন লেখা হয়। এর এক শতাংশের নাম সেন্ট। ১ ডলার ১০০ সেন্ট এর সমতূল্য।

মার্কিন ডলার বর্তমানে বিশ্বের সর্বাধিক প্রচলিত মুদ্রা। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ছাড়াও আরও কিছু দেশ ডলারকে সরকারী মুদ্রা হিসাবে ব্যবহার করে। মার্কিন ডলারের আন্তর্জাতিক ব্যবহার দ্বিবিধ। প্রথমত এটি আন্তর্জাতিক দেনা-পাওনা মেটানোর মুদ্রা। দ্বিতীয়ত এটি বহুল প্রচলিত একটি রিজার্ভ কারেন্সী। আমেরিকার মুদ্রার নাম কি

আমেরিকার রাজধানীর নাম কি

আমেরিকার রাজধানীর নাম ওয়াশিংটন ডি.সি.। এটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব উপকূলে পোটোম্যাক নদীর তীরে অবস্থিত। ওয়াশিংটন ডি.সি.কে প্রায়ই “ডিসি” বা “ওয়াশিংটন” নামে ডাকা হয়।

ওয়াশিংটন ডি.সি. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় সরকারের আসন। এখানে মার্কিন কংগ্রেস, প্রেসিডেন্টের বাসভবন হোয়াইট হাউস, সুপ্রিম কোর্ট এবং অন্যান্য সরকারি প্রতিষ্ঠান অবস্থিত। ওয়াশিংটন ডি.সি. একটি গুরুত্বপূর্ণ আন্তর্জাতিক শহর। এখানে অনেক আন্তর্জাতিক সংস্থার সদর দপ্তর অবস্থিত। আমেরিকার মুদ্রার নাম কি

ওয়াশিংটন ডি.সি.র নামকরণ করা হয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম প্রেসিডেন্ট জর্জ ওয়াশিংটনের নামে। শহরটি ১৭৯০ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। আমেরিকার মুদ্রার নাম কি

আমেরিকার মুদ্রার মান

আমেরিকার মুদ্রার মান মার্কিন ডলার। এর সাংকেতিক চিহ্ন লেখা হয়। এর এক শতাংশের নাম সেন্ট। ১ ডলার ১০০ সেন্ট এর সমতূল্য। আমেরিকার মুদ্রার নাম কি

মার্কিন ডলারের বিভিন্ন মানসমূহ হল:

  • নোটের মান:
    • ১ ডলার
      Image of ১ ডলার মার্কিন ডলার নোট
    • ৫ ডলার
      Image of ৫ ডলার মার্কিন ডলার নোট
    • ১০ ডলার
      Image of ১০ ডলার মার্কিন ডলার নোট
    • ২০ ডলার
      Image of ২০ ডলার মার্কিন ডলার নোট
    • ৫০ ডলার
      Image of ৫০ ডলার মার্কিন ডলার নোট
    • ১০০ ডলার
      Image of ১০০ ডলার মার্কিন ডলার নোট
  • মুদ্রা মান:
    • ১ সেন্ট

      Image of ১ সেন্ট মার্কিন ডলার মুদ্রা
    • ৫ সেন্ট

      Image of ৫ সেন্ট মার্কিন ডলার মুদ্রা
    • ১০ সেন্ট

    • ২০ সেন্ট

    • ৫০ সেন্ট

আরো পড়ুনঃ  ছুটির তালিকা ২০২৩ মাধ্যমিক বিদ্যালয়

মার্কিন ডলার বর্তমানে বিশ্বের সর্বাধিক প্রচলিত মুদ্রা। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ছাড়াও আরও কিছু দেশ ডলারকে সরকারী মুদ্রা হিসাবে ব্যবহার করে। মার্কিন ডলারের আন্তর্জাতিক ব্যবহার দ্বিবিধ। প্রথমত এটি আন্তর্জাতিক দেনা-পাওনা মেটানোর মুদ্রা। দ্বিতীয়ত এটি বহুল প্রচলিত একটি রিজার্ভ কারেন্সী। আমেরিকার মুদ্রার নাম কি

আমেরিকার ডলারের ছবি

অবশ্যই, এখানে আমেরিকান ডলারের বিভিন্ন মানগুলির চিত্র রয়েছে:

  • ১ ডলার
    Image of ১ ডলার মার্কিন ডলার নোট
  • ৫ ডলার
    Image of ৫ ডলার মার্কিন ডলার নোট
  • ১০ ডলার
    Image of ১০ ডলার মার্কিন ডলার নোট
  • ২০ ডলার
    Image of ২০ ডলার মার্কিন ডলার নোট
  • ৫০ ডলার
    Image of ৫০ ডলার মার্কিন ডলার নোট
  • ১০০ ডলার
    Image of ১০০ ডলার মার্কিন ডলার নোট

ডলার কি

ডলার হল একটি মুদ্রা যা বিভিন্ন দেশে ব্যবহৃত হয়। সবচেয়ে সাধারণ ডলার হল মার্কিন ডলার, যা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সরকারী মুদ্রা। অন্যান্য ডলারের মধ্যে রয়েছে কানাডীয় ডলার, অস্ট্রেলীয় ডলার, এবং নিউজিল্যান্ড ডলার।

ডলারের প্রতীক হল “$”। ডলারের এক শতাংশের নাম সেন্ট। ১ ডলার ১০০ সেন্ট এর সমতুল্য। আমেরিকার মুদ্রার নাম কি

মার্কিন ডলার বিশ্বের সর্বাধিক প্রচলিত মুদ্রা। এটি আন্তর্জাতিক বাণিজ্য এবং বিনিয়োগে ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হয়।

ডলারের ইতিহাস অনেক পুরনো। এটি প্রথম ১৬শ শতাব্দীতে স্পেন এবং পর্তুগালে ব্যবহৃত হয়েছিল। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ১৭৯২ সালে ডলারকে তার সরকারী মুদ্রা হিসাবে গ্রহণ করে।

ডলারের মান বৈশ্বিক অর্থনীতির উপর নির্ভর করে। যখন মার্কিন অর্থনীতি শক্তিশালী হয়, তখন ডলারের মান বাড়ে। যখন মার্কিন অর্থনীতি দুর্বল হয়, তখন ডলারের মান কমে যায়।

ডলার একটি গুরুত্বপূর্ণ মুদ্রা যা বিশ্ব অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

উত্তর আমেরিকার রাজধানীর নাম কি

উত্তর আমেরিকার রাজধানীর নাম ওয়াশিংটন, ডি.সি.। এটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব উপকূলে পোটোম্যাক নদীর তীরে অবস্থিত। ওয়াশিংটন ডি.সি.কে প্রায়ই “ডিসি” বা “ওয়াশিংটন” নামে ডাকা হয়।

আরো পড়ুনঃ  নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবল দল বনাম আর্জেন্টিনা এর লাইন-আপ

ওয়াশিংটন ডি.সি. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় সরকারের আসন। এখানে মার্কিন কংগ্রেস, প্রেসিডেন্টের বাসভবন হোয়াইট হাউস, সুপ্রিম কোর্ট এবং অন্যান্য সরকারি প্রতিষ্ঠান অবস্থিত। ওয়াশিংটন ডি.সি. একটি গুরুত্বপূর্ণ আন্তর্জাতিক শহর। এখানে অনেক আন্তর্জাতিক সংস্থার সদর দপ্তর অবস্থিত। আমেরিকার মুদ্রার নাম কি

ওয়াশিংটন ডি.সি.র নামকরণ করা হয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম প্রেসিডেন্ট জর্জ ওয়াশিংটনের নামে। শহরটি ১৭৯০ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল।

উত্তর আমেরিকার অন্যান্য দেশগুলির রাজধানীর নামগুলি হল:

  • কানাডা: অটোয়া
  • মেক্সিকো: মেক্সিকো সিটি
  • গ্রিনল্যান্ড: নুক
  • বারমুডা: হার্মিটেজ
  • সেন্ট প্যারি ও ম্যাকুইলন: সেন্ট প্যারি ও ম্যাকুইলন

এই দেশগুলির মধ্যে, কানাডা, মেক্সিকো এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র হল উত্তর আমেরিকার তিনটি বৃহত্তম দেশ।

ডলার কেন আন্তর্জাতিক মুদ্রা

 

ডলার আন্তর্জাতিক মুদ্রা হওয়ার বেশ কিছু কারণ রয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে:

  • মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনৈতিক শক্তি: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বের বৃহত্তম অর্থনীতি। এই অর্থনৈতিক শক্তির কারণে মার্কিন ডলার বিশ্বের অন্যতম স্থিতিশীল মুদ্রা হিসেবে বিবেচিত হয়।
  • মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক প্রভাব: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বের অন্যতম শক্তিশালী দেশ। এই আন্তর্জাতিক প্রভাবের কারণে মার্কিন ডলার বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বহুল ব্যবহৃত হয়।
  • তেলের দাম নির্ধারণ: বিশ্বের তেলের দাম ডলারে নির্ধারণ করা হয়। এই কারণে বিশ্বের অনেক দেশ তাদের তেলের বিক্রির জন্য ডলার গ্রহণ করে।

এই কারণগুলির কারণে ডলার বিশ্বের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ মুদ্রা হিসেবে বিবেচিত হয়।

ডলারের আন্তর্জাতিক ব্যবহারের কিছু নির্দিষ্ট উদাহরণ হল:

  • আন্তর্জাতিক বাণিজ্য: বিশ্বের বেশিরভাগ আন্তর্জাতিক বাণিজ্য ডলারে করা হয়।
  • আন্তর্জাতিক ঋণ: বিশ্বের বেশিরভাগ আন্তর্জাতিক ঋণ ডলারে দেওয়া হয়।
  • আন্তর্জাতিক বিনিয়োগ: বিশ্বের বেশিরভাগ আন্তর্জাতিক বিনিয়োগ ডলারে করা হয়।

ডলারের আন্তর্জাতিক ব্যবহারের কারণে বিশ্ব অর্থনীতিতে এর প্রভাব ব্যাপক। আমেরিকার মুদ্রার নাম কি

ইউয়ান কোন দেশের মুদ্রা

ইউয়ান গণপ্রজাতন্ত্রী চীনের সরকারী মুদ্রা। এটি রেনমিনবি নামেও পরিচিত, যার অর্থ ম্যান্ডারিনে “জনগণের মুদ্রা”।

চীনের রাজধানী বেইজিং। চীন বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতি। ইউয়ান বিশ্বের চতুর্থ সর্বাধিক প্রচলিত মুদ্রা।

আরো পড়ুনঃ  আমাশয় রোগের এলোপ্যাথিক ঔষধের নাম

 

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top